eibela24.com
রবিবার, ২১, অক্টোবর, ২০১৮
 

 
ঢাকায় হোলী নিয়ে ধর্মানুভূতিতে আঘাত: জাতীয় হিন্দু মহাজোট সহ অন্যান্য সংঘঠনের এর তীব্র প্রতিবাদ
আপডেট: ০৮:৪৯ am ১৭-০৩-২০১৭
 
 


ডেস্ক নিউজ: হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম একটি উৎসব হোলি।আর এই উৎসবকে ঘিরে পুরাতন ঢাকা সহ সারাদেশে রঙের ছোঁয়ায় মেতে ওঠে।

আনন্দ আর উল্লাসে পালিত হয় এই দিনটি।পুরাতন ঢাকায় যুগযুগ ধরে চলে আসছে এই উৎসব।  হিন্দু ধর্মাবলম্বী ছাড়াও বিভিন্ন ধর্মের মানুষ তরুণ-তরুণী অংশ নেয় উৎসবে।

কিন্তু এবারের উৎসবে বেশকিছু অভিযোগ এসেছে সামনে। রাজধানীর শাঁখারীবাজারে হোলি উৎসবকে কেন্দ্র করে পথচারীদের জোর করে রঙ মাখিয়ে দেয়ায়  ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ছবি ও সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করে মো. আকাশ (১৯), মো. সিফাত (২০) ও মো. মামুন (১৮)  বুধবার তাদের আটক করা হয়।

কিন্তু এই বিষয়ে নানান ধরনের অভিযোগ এনে বাংলাদেশের সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর নানা ধরনের বাজে মন্তব্য করে অনেকে তার ভিতরে ডঃ তুহীন মালিক নামের একজনের ফেসবুকে তিনি লিখেন:-  মুসলিম মা বোনেরা সাবধান!!!!! আপনাদের মান ইজ্জত সম্ভ্রম মালু সন্ত্রাসীদের হাতে রাস্তাঘাটেও নিরাপদ নয়।

দেখুন হিন্দু পতিতার বাচ্চারা হোলি পূজার নাম দিয়ে কিভাবে মুসলমান হিজাব পরিহিতা নারীদের মান সম্ভ্রম নষ্ট করছে। আফসুস হে নারীবাদী মালাউন!!! আফসুস এখন তোদের চেতনাদন্ড দাড়ায় না কেন হে শিবের জারজ সন্তানেরা!!!!!!

আর প্রশাসন কি নমশূদ্র হয়ে গেছে? তাই একেবারে চুপ? ভালো খুব ভালো, সামনে মালুরা আপনাদের মা বোনদের ইজ্জত নষ্ট করবে।

 

ডঃ তুহিন মালেক এর ফেসবুক পোষ্টের তীর্ব প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট এর নেতাকর্মীরা তারা বলেন যেখানে ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ছবি ও সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করে যারা এই কাজ করেছে তাদের আটক করা হয়েছে  তারা সবাই মুসলিম পরিবারের সন্তান সেখানে ডঃ তুহিন মালিক এভাবে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর এত বাজে মন্তব্য তিনি কি ভাবে করেন হিন্দু মহাজোট এর নেতাকর্মীরা  এ বিষয়ে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

মহাজোট এর নেতাকর্মীরা বলেন যে, যদি কেও অপরাধ করে তাদের বিচার হক তা আমরাও চাই কিন্তু যদি কোন অপরাধ না করেও এ ভাবে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকেদের নিয়ে বাজে মন্তব্য আমরা সহ্য করবো না তারা এর সঠিক তদন্ত ও বিচারের দাবি জানায়।

তারা আরো বলেন যে, ডঃ তুহীন মালিক এর ফেসবুকে প্রতিনিয়ত সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়কে নিয়ে তিনি বাজে বাজে মন্তব্য পোষ্ট করেন যা অন্যায় এরও প্রতিকার চান  এ বিষয়ে ডঃ তুহীন মালিক এর বিচার না হলে তারা কঠিন  আন্দোলনে যাবে বলে জানায়। 

ডঃ তুহীন মালিক এর আর একটা ফেসবুক পোষ্ট তুলে ধরা হল:  হিন্দুদের ভগবান শ্রী কৃষ্ণ তার মামী রাধার উপর সারারাত এতটাই যৌন আনন্দ করেছিলো যে রাধার সারা শরীর রক্তে রঞ্জিত হয়ে যায়। সেই বিষয়টি আড়াল করতে হিন্দুদের ভগবান শ্রী কৃষ্ণ সবাইকে সবাই রং দিয়ে খেলতে নির্দেশ দিয়ে ছিলো , যেন রাধার রক্তের-রঞ্জিত শরীর আড়াল করা যায়। হিন্দুদের ভগবান কৃষ্ণ ও রাধার সেই স্মৃতি স্মরণ করতেই হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা হোলী বা দোল যাত্রা পূজা করে থাকে। নাউজুবিল্লাহ!
-------------------------------------
এখন হিন্দুদের থেকে বেশি পালন করে মুসলমানেরা এই হোলীটা। নাউজুবিল্লাহ! গতকাল দেখলাম সারা শরীরে রঙ মেখে সেল্ফি তুলে ফেইজ বুকে দিয়েছে আমাদের এলাকার পোলাপাইন। তাদের কাছে আমার একটাই প্রশ্ন তোরাও কি হিন্দু নাকিরে মূর্খের দল?আমি আশা করি এই নোংরা ইতিহাস জানার পর অন্তত তাওবা করবে সকলেই। আর কখনো এই রকম পূজায় অংশগ্রহণ করবে না।
-------------------------------------
মহান আল্লাহ পাক সকলকে হেদায়েত দান করুন। এবং এই পাপকাজ থেকে বিরত থাকার তৌফীক দান করুন। আমিন!

 

 

এইবেলাডটকম