eibela24.com
শুক্রবার, ২০, এপ্রিল, ২০১৮
 

 
শিক্ষা খাতে ১৭ হাজার ১১৩ কোটি টাকা বরাদ্দ
আপডেট: ১১:৩৯ pm ০৪-০৬-২০১৫
 
 


আগামী ২০১৫-১৬ অর্থ বছরের বাজেটে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য সর্বমোট ১৭ হাজার ১১৩ কোটি ৬৬ লাখ টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।
এবার প্রস্তাবিত বরাদ্দের ১২ হাজার ৯১৬ কোটি ৩২ লাখ টাকা অনুন্নয়ন ও ৪ হাজার ১৯৭ কোটি ৩৪ লাখ টাকা উন্নয়ন খাতে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।
এ বরাদ্দ গত অর্থবছরের (২০১৪-১৫) সংশোধিত বাজেট অনুযায়ী ১৬ হাজার ২০৭ কোটি ৫৪ লাখ ৩৪ হাজার কোটি টাকার চেয়ে ৯০৬ কোটি টাকা বেশি।
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আজ জাতীয় সংসদে উপস্থাপিত জাতীয় বাজেটে এ প্রস্তাব করেন।
আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, মানসম্পন্ন শিক্ষার প্রসারে এ সরকারের উদ্ভাবিত সৃজনশীল প্রশ্নপত্রের ব্যবহার, মাধ্যমিক পর্যায় পর্যন্ত বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ, সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ, উপবৃত্তি প্রদানের মত কৌশলসমূহ বেশ ফলপ্রসূ হয়েছে, যা অব্যাহত থাকবে। একই সঙ্গে চলমান থাকবে ইংরেজি ও গণিত শিক্ষকদের বিশেষ প্রশিক্ষণ কার্যক্রম।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট ফান্ডের এক হাজার কোটি টাকা সিড মানির বিপরীতে অর্জিত ৭৫ কোটি টাকা মুনাফা হতে ¯œাতক ও সমপর্যায়ের মেয়েদের উপবৃত্তি প্রদান কার্যক্রমও চলমান থাকবে।
কারিগরি শিক্ষার মানউন্নয়নের কথা উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, জনমিতির লভ্যাংশের সুবিধা কাজে লাগানোর জন্য আমাদের প্রয়োজন কারিগরি শিক্ষার ব্যাপক প্রসার। এ লক্ষ্যকে সামনে রেখে ৯২৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০০টি উপজেলায় একটি করে কারিগরি বিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, প্রতিটি বিভাগীয় শহরে ১টি করে গার্লস টেকনিক্যাল স্কুল, ২৩টি জেলায় পলিটেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট, ৪টি ভিাগীয় শহরে ৪টি মহিলা পলিটেকটিক্যাল ইনস্টিটিউট এবং সকল বিভাগে ১টি করে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ স্থাপনের জন্য উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া ১৫ থেকে ৪৫ বছর বয়সী নিরক্ষর জনগোষ্ঠীকে মৌলিক সাক্ষরতা ও জীবনদক্ষতামূলক প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য ১টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।
শিক্ষাক্ষেত্রে তথ্যপ্রযুক্তির প্রয়োগ এবং উচ্চশিক্ষার প্রসারের কথা উল্লেখ করে মুহিত বলেন, তথ্যপ্রযুক্তির প্রয়োগ নিশ্চিত করতে ইতোমধ্যে শুরু হওয়া কার্যক্রমের পাশাপাশি বর্তমান সরকার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট নির্মাণ করছে। এগিয়ে চলেছে ১২৮টি উপজেলায় রিসোর্স সেন্টার স্থাপনের কাজ।
তিনি বলেন, বরিশালে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ স্থাপনের কাজ এগিয়ে চলছে। উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়, গাজীপুর ডিজিটাল ইউনির্ভাসিটি, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় ও সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের। বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের উচ্চশিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করতে শেখ হাসিনার সরকার এ্যাক্রিডিটেশন কাউন্সিল গঠনের প্রক্রিয়া প্রায় চূড়ান্ত করে এনেছে। সবার জন্য গুণগত মান নিশ্চিত করতেই বর্তমান সরকার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য উল্লেখিত প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে উপরোক্ত বরাদ্দ প্রস্তাব করেছে বলে মন্ত্রী জানান।
এইবেলা ডট কম/এইচ আর