eibela24.com
মঙ্গলবার, ২৮, সেপ্টেম্বর, ২০২১
 

 
কোনো লক্ষণ ছাড়া ঢাকার অর্ধেক মানুষ করোনা আক্রান্ত
আপডেট: ১০:২৩ pm ১২-১০-২০২০
 
 


কোনও লক্ষণ উপসর্গ না থাকলেও রাজধানীর ৪৫ শতাংশ অর্থাৎ প্রায় অর্ধেক বাসিন্দা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলে রক্ত পরীক্ষায় ধরা পড়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ২৪ শতাংশের বয়স ৬০ বছরের বেশি।

সবচেয়ে অবাক করা তথ্য হচ্ছে বস্তিবাসীদের মধ্যে ৭৪ শতাংশের করোনা হয়েছিল। এছাড়া দেশে করোনাভাইরাসের জিন বিশ্লেষণ করে গবেষকেরা অনুমান করছেন, ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি দেশে প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছিল।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানের একটি হোটেলে দেশে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি ও জিন রূপান্তর নিয়ে গবেষণার এই তথ্য প্রকাশ করা হয়। সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) ও বেসরকারি আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি) যৌথভাবে এই গবেষণা করেছে। এই গবেষণায় আর্থিক সহায়তা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের দাতা সংস্থা ইউএসএ আইডি এবং বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন। যৌথ গবেষণায় ঢাকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের এ চিত্র উঠে এসেছে।

করোনা গবেষণায় দেখা গেছে, ঢাকা শহরের বস্তির প্রায় তিন চতুর্থাংশ মানুষ ইতিমধ্যে সংক্রমিত হয়েছেন। করোনার কোনো লক্ষণ ছিল না এমন ৪৫ শতাংশ নগরবাসী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে বলে রক্ত পরীক্ষায় ধরা পড়েছে।

এ বিষয়ে আইইডিসিআর সহকারী প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান বলেন, যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তাদের ৮২ ভাগের কোনো লক্ষণই ছিল না, ৬ ভাগের লক্ষণ ছিল, ১২ ভাগ প্রিসিম্পটোমেটিক ছিল। ঢাকা সিটিতে ৯.৮ শতাংশ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। বস্তিতে আক্রান্তের হার ৫.৭ ভাগ।

মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমণ যাতে না আসে সেজন্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। জনগণ সচেতন না হলে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ কষ্টসাধ্য ব্যাপার। যারা ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তাদেরও সতর্ক থাকার পরামর্শ থাকল।

আইইডিসিআর পরিচালক তাহমিনা শিরীন বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশে ভ্যাকসিন যেভাবে কাজ করবে, বাংলাদেশেও ঠিক একইভাবে কাজ করবে।

নি এম/