eibela24.com
বুধবার, ৩০, সেপ্টেম্বর, ২০২০
 

 
পিএমএল-এন নেতা খাজা আসিফের ইমরান খান কে নিন্দা ও ভৎসনা !
আপডেট: ০৪:৪৪ pm ১২-০৭-২০২০
 
 


https://www.opindia.com/2020/06/watch-pml-n-leader-khawaja-asif-slams-imran-khan-for-pakistans-brother-nations-voting-for-india-at-unsc/amp/

পাকিস্তানি বিধায়ক এবং পিএমএল-এন (পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নুন) এর সদস্য খাজা আসিফ কূটনৈতিক ফ্রন্টে ব্যর্থতার জন্য প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে কটূক্তি করেছিলেন। একই সাথে তিনি বক্তব্যে জাতিসংঘে নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী আসনে ব্যাপক ভোটে জয়ী হওয়ার জন্য ভারতের প্রশংসা করেছিলেন। 

গত বৃহস্পতিবার দেওয়া বক্তব্যের চৌদ্দ মিনিট পরে তিনি বলেন, নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য নির্বাচনে ভারতের জয় গুরুত্বপূর্ণ নয়৷ গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল সেখানে ১৯২ টি ভোটের মধ্যে ১৮৪ ভোট পাওয়া। আমাদের বন্ধু রাষ্ট্র গুলোর ভোট ভারতের পক্ষে পড়েছে যা বিশেষ গুরুত্ব বহন করে। 

খাজা আসিফ আরো বলেন, প্রকৃত পরিস্থিতি হল পাকিস্তানের বৈদেশিক নীতি, স্বাস্থ্য-অর্থনৈতিক পরিকল্পনা সকল বিষয়ই ব্যর্থ হয়ে মুখ থুবড়ে পড়েছে। প্রধানমন্ত্রী মিথ্যা বলে আমাদের বোকা বানানোর মাধ্যমে সন্তুষ্ট করার চেষ্টা করছেন। ইমরান খানের কারনেই পাকিস্তান ধ্বংস হয়েছে এবং তিনি ক্ষমতায় থাকলে অবস্থার কোন সমাধান হয়ে না৷ ইমরান খানকে ক্ষমতা থেকে সরানো গেলেই শুধু পাকিস্তানের মুক্তি সম্ভব। 

বিন লাদেনকে ‘শহীদ’ বলার জন্য ইমরান খানের প্রতি নিন্দা
খাজা আসিফ অত্যন্ত জোরালো ভাবে নিহত সন্ত্রাসী ওসামা বিন লাদেনকে শহীদ বলার জন্য ইমরান খানক প্রতি তীব্র নিন্দা জানান। আসিফ বলেন, বিন লাদের ছিল আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী। বিন লাদেন আমাদের দেশ ধ্বংস করেছে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী তাকে শহীদ বলছে সেই ওসামাকে সাবেক সামরিক শাসক জিয়া-উল-হক পাকিস্তানে নিয়ে এসেছিলেন। জিয়া উল হকের মত পারভেজ মোশাররফ ইমরানের গডফাদার ছিলেন এবং এখনও আছেন। 

ভারত বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ইউএনএসসি আসনে জয় লাভ করেছে

বুধবার রাতে ভারত এশিয়া-প্যাসিফিক বিভাগ থেকে অস্থায়ী সদস্য হিসেবে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে অপ্রতিদ্বন্দ্বী ভাবে নির্বাচিত হয়েছে। সাধারণ অধিবেশনে ১৯৩ সদস্যের মধ্য থেকে ১৮৪ টি ভোট পেয়ে জয় লাভ করার মধ্য দিয়ে ভারত সবার নিরবিচ্ছিন্ন সমর্থন অর্জন করেছে। যেখানে মাত্র ১২৮ ভোট পেয়েই নির্বাচিত হওয়া যায়। 

ভারত তার দুই বছর মেয়াদের দায়িত্ব ভার গ্রহন করবে ১ জানুয়ারি ২০২১ সালে। নিরাপত্তা পরিষদের পাচজন স্থায়ী এবং দশজন অস্থায়ী সদস্য থাকে৷ জাতিসংঘের উচ্চ পর্যায়ে এবার দিয়ে আটবার দায়িত্ব পালন করবে ভারত।

নি এম/