eibela24.com
মঙ্গলবার, ২০, অক্টোবর, ২০২০
 

 
করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক তৈরি করে বিশ্বকে স্বস্তি দিলেন ডাঃ সীমা মিশ্র!
আপডেট: ০৪:৫০ pm ২৯-০৩-২০২০
 
 


ভারতের হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের জৈব রসায়ন বিভাগের অধ্যক্ষ সীমা মিশ্র, তাঁর হাতে তৈরি কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক তৈরি করে বিশ্বকে স্বস্তি দিলেন ডাঃ সীমা মিশ্র! গোটা বিশ্বকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়েছে মারণ করোনাভাইরাস। অথচ এই লোককে সামাল দিতে কোনও কূলকিনারা খুঁজে পাচ্ছে না বিশ্ব। এহেন পরিস্থিতিতে এবার দিশা দেখালেন ভারতের এক নারী। তৈরি করে ফেললেন মারণ কোন ভাইরাসের প্রতিষেধক। এই ঘটনায় ভারত তো বটেই স্বস্তির শ্বাস ফেলছে গোটা পৃথিবীর মানবকুল।

হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের জৈব রসায়ন বিভাগের অধ্যক্ষ সিমা মিশ্র। তার হাতেই তৈরি হয়েছে টিসেল এপিডোপস। দাবি করা হচ্ছে এই ভ্যাকসিনই করোনা রুখতে পুরোপুরি সক্ষম। এ প্রসঙ্গে সম্প্রতি হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে প্রেস রিলিজ প্রকাশ্যে এনে জানানো হয়, হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের জৈব রসায়ন বিভাগের অধ্যক্ষ সিমা মিশ্র এই ভাইরাসের সম্ভাবিত ভ্যাকসিন তৈরি করেছেন।

মানব শরীরের ঘাঁটি গেড়ে বসা নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমিত ও অসংক্রমিত কোষগুলির উপর প্রভাব ফেলতে সক্ষম এই ভ্যাকসিন। এই ভ্যাকসিন ছোট করোনা ভাইরাল অনুর কষিকা দ্বারা ব্যবহার করা হয়। সাধারণ টিকার খোঁজ করতে গেলে যেখানে প্রায় ১৫ বছর লেগে যায় । সেখানে শক্তিশালী কম্পিউটারের মাধ্যমে ১০ দিনেই এই সাফল্য পেয়েছেন সীমা ভাইরাস রুখতে মানব কোষিকায় কতখানি প্রভাব ব্যবহার করা হবে তার বিশদ তালিকা তৈরি করেছেন ওই বিজ্ঞানী। আশা করা হচ্ছে, এই প্রতিষেধক আগামী দিনে বিশ্বকে পথ দেখাতে সক্ষম হবে।

তবে একদিকে যখন প্রতিষেধক তৈরি তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে দেশ, তখন শেষ বেলায় দাপটের সঙ্গে রাজ করছে করোনাভাইরাস। তথ্য বলছে গোটা বিশ্বে এখনো পর্যন্ত প্রায় ৬ লাখ ২১ হাজার মানুষ করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। যার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে, ২৮ হাজার ৬৫৩ জনের। ভারতেও ক্রমাগত বেড়ে চলেছে সংখ্যাটা শেষ পাওয়া খবরে ভারতে এখন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯৫৩ জন। নতুন করে ফের আক্রান্ত হয়েছেন ৪৬ জন মানুষ। মৃত্যু হয়েছে কুড়ি জনের। এহেন পরিস্থিতিতে সিমার এই আবিষ্কার আশার আলো বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

নি এম/