eibela24.com
সোমবার, ০৯, ডিসেম্বর, ২০১৯
 

 
ইকুয়েডরে ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭৭
আপডেট: ০৪:০৯ am ১৭-০৪-২০১৬
 
 


আন্তরজাতিক ডেস্ক: একটি শক্তিশালী ভূকম্পন দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ইকুয়েডরের উপকূলে অনুভূত হয়েছে। এতে এখন পর্যন্ত অন্তত ৭৭ জনের  মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

মার্কিন ভূ-তাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস) জানায়, স্থানীয় সময় শনিবার রাত ১১টা ৫৮ মিনিটে ওই ভূকম্পনটি অনুভূত হয়। এর স্থায়িত্ব ছিল ৪০ সেকেন্ড। রিখটার স্কেলে ভূকম্পনের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৮।

দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট জর্জ গ্লাস ইতোমধ্যে ৭৭ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, ভূমিকম্পের পর সুনামি সতর্কতা জারি করেছে প্রশান্ত মহাসাগরীয় সুনামি সতর্কতা কেন্দ্র।

ইউএসজিএস জানায়, শক্তিশালী ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল ইকুয়েডরের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলের উপকূলীয় শহর মুইসিন থেকে ২৭ কিলোমিটার দূরে এবং ভূ-পৃষ্ঠ থেকে ১৯ দশমিক ২ কিলোমিটার গভীরে।

সংস্থাটি জানায়, প্রকৃতপক্ষে একই স্থানে ১১ মিনিটের ব্যবধানে দুটি ভূমিকম্প হয়। প্রথমটি ছিল ৪ দশমিক ৮ মাত্রার। আর দ্বিতীয়টির মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৮।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর মুইসিন থেকে ৩শ' কিলোমিটার দূরবর্তী গোয়েকুইল শহরের একটি ফ্লাইওভার ধসে পড়ে। কেঁপে উঠে দেশটির রাজধানী কুইটো শহরের ভবনগুলোকে।

ভূমিকম্পে বিস্তীর্ণ এলাকা থেকে ক্ষয়ক্ষতির তথ্য আসছে। ছয়টি প্রদেশে জরুরি অবস্থা জারি করে ন্যাশনাল গার্ডকে উদ্ধার কাজে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে শক্তিশালী এ ভূমিকম্পে পেরুর উত্তরাঞ্চলও কেঁপে ওঠে বলে কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে। তবে সেখানে এখনও হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

 

এইবেলা ডটকম/এডি