রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮
রবিবার, ৭ই শ্রাবণ ১৪২৫
 
 
‘লভ জিহাদ’ মামলায় তদন্তে এনআইএ : সুপ্রিম কোর্ট
প্রকাশ: ১০:০৬ pm ১৬-০৮-২০১৭ হালনাগাদ: ১০:০৬ pm ১৬-০৮-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


এত দিন ‘লভ জিহাদে’র অস্তিত্বই স্বীকার করেনি ভারতীয় শীর্ষ আদালত। তবে, এই প্রথম এনআইএ-এর মতো জাতীয় তদন্তকারী সংস্থাকে এ নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিল ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট।

কেরালার একটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার এই নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি জে এস খেহরের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ। শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি আর ভি রবীন্দ্রন নেতৃত্বাধীন একটি কমিটির তত্ত্বাবধানে এ নিয়ে তদন্ত করবে এনআইএ। এ দিন আদালতে এনআইএ জানিয়েছে, দেশের নিরাপত্তার জন্য বিপজ্জনক ‘লভ জিহাদ’। এবং বাস্তবিকই ‘লভ জিহাদ’ হয়। দেশের বহু প্রান্তে এমন বহু ঘটনা ঘটছে যেখানে দেখা যাচ্ছে, হিন্দু তরুণীদের তাঁদের ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে। এর পর তাঁদের মুসলিম যুবকদের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এবং একে ‘লভ জিহাদে’র নাম দেওয়া হচ্ছে।

‘লভ জিহাদে’র প্রসঙ্গটি সুপ্রিম কোর্টে ওঠে কেরালার একটি মামলার অঙ্গ হিসেবে। গত ডিসেম্বরে ২৪ বছরের অখিলা ওরফে হাদিয়াকে বিয়ে করেন কেরালার বাসিন্দা শাফিন জাহান। তবে বিয়ের আগেই ধর্ম পরিবর্তন করেন তিনি। মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করে শাফিন জাহানকে বিয়ের পর পরিবারের বিরোধিতার মুখে পড়েন অখিলা ওরফে হাদিয়া।

শাফিনের দাবি, তাঁর স্ত্রী বিয়ের আগেই ধর্মান্তরিত হয়েছিলেন। এবং তিনি এক জন স্বাধীন মহিলা। ফলে নিজের সম্পর্কে যে কোনও সিদ্ধান্ত তিনি স্বাধীন ভাবে নিতে পারেন। কিন্তু, ওই তরুণীর বাবা অশোকান কে এম-এর দাবি, হিন্দু তরুণীদের ইসলামে ধর্মান্তরিত করে এমন একটি চক্রের জালে ফেঁসে গিয়েছেন তাঁর মেয়ে। তবে শাহিনের পাল্টা দাবি, অশোকান তাঁর স্ত্রীকে ঘরবন্দি করে রেখেছেন। এর পরই মামলা গড়ায় কেরেলার হাইকোর্ট পর্যন্ত। গত ২৪ মে একে ‘লভ জিহাদ’ বলে তাঁদের বিয়ে খারিজ করে দেয় কেরেোর হাইকোর্ট। এর পরই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন শাফিন।

সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, ওই মামলায় কেরেলার হাইকোর্টের রায় ‘নিরপেক্ষ’ ছিল কি না তা-ও দেখবে এনআইএ। এ ছাড়া তদন্তে কেরেলার পুলিশের ভূমিকাও খতিয়ে দেখবে তদন্তকারী কর্মকর্তারা । এ দিনের নির্দেশের পর কেরেলার সরকার জানিয়েছে, এ নিয়ে এনআইএ তদন্তের বিরোধিতা করবে না তারা।

নি এম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71