সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮
সোমবার, ৩রা পৌষ ১৪২৫
 
 
লোহাগড়া ক্রীড়া সংস্থা
৯ বছর কমিটি নেই, কার্যক্রম ব্যহত
প্রকাশ: ০৪:৫০ pm ২৮-১২-২০১৭ হালনাগাদ: ০৪:৫২ pm ২৮-১২-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক:
 
 
 
 


নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ক্রীড়া সংস্থার দীর্ঘ ৯ বছর কমিটি নেই। এ কারনে বিভিন্ন প্রতিযোগিতা যেমন আয়োজন করা সম্ভব হচ্ছে না, তেমনি ক্রীড়া কার্যক্রম নানা ভাবে ব্যহত হচ্ছে। ক্রীড়া সংস্থার কমিটি না থাকায় ক্রীড়াঙ্গন জুড়ে স্থবিরতা বিরাজ করছে। প্রাণহীন হয়ে পড়েছে লোহাগড়ার ক্রীড়াঙ্গন।

উপজেলার ক্রীড়াঙ্গনের সংগঠকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বিগত ২০০৮ সালে উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার ত্রি-বার্ষিক কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে। এরপর কর্তৃপক্ষ কমিটি গঠনের লক্ষে নির্বাচন ঘোষনা করেন। নির্বাচনের দিন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য নির্বাচন স্থগিত করা হয়। এ ঘটনার পর উপজেলার ক্রীড়া সংস্থার কমিটি গঠন করা সম্ভব হয় নাই।

উপজেলা ক্রীড়া সংস্থায় ১০টি পদ রয়েছে। পদাধিকার বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সভাপতি। এছাড়া দু’জন সহ-সভাপতি, একজন সাধারন সম্পাদক, দু’জন সহ-সাধারন সম্পাদক, একজন কোষাধ্যক্ষ ও ৬টি সদস্য পদ রয়েছে।
 
উপজেলার বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক মাহাবুব আহম্মদ জানান, কমিটি থাকা কালে এখানে বিভিন্ন ধরনের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হতো। প্রতিটি ইউনিয়নে গ্রাম ভিত্তিক ফুটবল, ভলিবল, ক্রিকেট, হাডুডুসহ নানা খেলাধুলার আয়োজন করা হতো। শুধু তাই নয়, ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে খেলোয়াড়দের জন্য প্রশিক্ষনের ব্যবস্থাও করা হতো। ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে ইউএনও কাপ, উপজেলা কাপসহ বিভিন্ন টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হতো। কিন্তু কমিটি না থাকায় লোহাগড়ার ক্রীড়াঙ্গন প্রাণহীন ও অভিভাবকহীন হয়ে পড়েছে।
 
অ্যাথলেটিকসের কোচ ও লোহাগড়ার ক্রীড়াঙ্গনের অন্যতম সংগঠক দীলিপ চক্রবর্তী বলেন, অ্যাথলেটিকসে স্কুল পর্যায়ে টানা ১০বার জাতীয় পর্যায়ে ‘দেশসেরা’ লোহাগড়া উপজেলা। কিন্তু হ্যান্ডবল, ভলিবল, হকি, বাস্কেটবল, ফুটবল, ক্রিকেটসহ অন্যান্য খেলাধুলায় এ উপজেলার খেলোয়াড়রা জেলা বা বিভাগ পর্যায়ে যেতে পারছে না। উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার কমিটি না থাকায় এসব খেলার জন্য প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করা সম্ভব হচ্ছে না। তিনি দ্রুত উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার কমিটি গঠনেরও দাবী জানান।
 
উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাবেক সাধারন সম্পাদক ও লোহাগড়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এসএম হায়াতুজ্জামান বলেন, তৃণমূল পর্যায়ে খেলোয়াড় তৈরীর জন্য উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার কোন বিকল্প নেই। দীর্ঘদিন ক্রীড়া সংস্থার কমিটি না থাকায় লোহাগড়ার ক্রীড়াঙ্গন জুড়ে চরম স্থবিরতা বিরাজ করছে। তিনিও অবিলম্বে ক্রীড়া সংস্থার কমিটি গঠনের দাবী জানান।

নড়াইল জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক ও বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের উপ-মহাসচিব আশিকুর রহমান মিকু বলেন, জেলা প্রশাসক ও ইউএনও’র সদিচ্ছার অভাবে কমিটি হচ্ছে না।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনিরা পারভীন জানান, কমিটি না থাকায় ক্রীড়ার সরকারী বরাদ্দ উত্তোলন করা সম্ভব হচ্ছে না। তাছাড়া কমিটি গঠন করার ক্ষেত্রে জটিলতাও রয়েছে। তবে খুব শীঘ্রই উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার কমিটি গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

আরএম/এসকে 
 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71