বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১
বুধবার, ১লা বৈশাখ ১৪২৮
সর্বশেষ
 
 
হাসপাতালের মর্গে ‘মৃত ব্যক্তির’ চিৎকারে ভয়ে মর্গের কর্মীদের পলায়ন!
প্রকাশ: ০৪:২৭ pm ৩০-১১-২০২০ হালনাগাদ: ০৪:২৭ pm ৩০-১১-২০২০
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


পেটের পীড়া নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি এক ব্যক্তিকে মৃত ঘোষণা দিয়ে মর্গে পাঠান চিকিৎসকরা। নার্সের কাছে খবর পেয়ে ওই ব্যক্তির ভাই মর্গে যান মরদেহ নিতে। মরদেহ সংরক্ষণের প্রক্রিয়া শুরু হতেই জেগে ওঠেন ‘মৃত’ ব্যক্তি। নিজেকে মর্গে দেখতে পেয়ে তিনি তারস্বরে চিৎকার শুরু করলে ভয়ে পালিয়ে যান মর্গের কর্মীরা।

আফ্রিকার দেশ কেনিয়ার একটি হাসপাতালে গত মঙ্গলবার ভযঙ্কর এই অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হন মর্গের কর্মচারীরা।

দ্য সান এক প্রতিবেদনে বলেছে, পিটার কিগেন নামের ওই ব্যক্তি পেটে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে কেনিয়ার কেইরিচোর কাপলাটেট হাসপাতালে ভর্তি হন। ভর্তির কয়েকদিন পর তার পরিবারের লোকের কাছে খবর যায় ৩২ বছর বয়সী পিটার মারা গেছেন।

এক নার্সের মাধ্যমে ভাইয়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে মরদেহ আনতে মর্গে যান পিটারের ভাই। তিনি জানান, হাসপাতালের এক নার্স তাকে ভাইয়ের মৃত্যুর খবর দেন। মর্গ থেকে মরদেহ নেয়ার জন্য তাকে কাগজপত্রও দেন নার্স।

তিনি বলেন, কিন্তু যখনই পিটারের মরদেহ সংরক্ষণের প্রক্রিয়া শুরু হয়, তখনই জেগে ওঠে নিজেকে মর্গে দেখেই চিৎকার করতে শুরু করেন পিটার। তার চিৎকার শুনে ভয়ে পালিয়ে যান মর্গের কর্মীরা। একজন জীবিত ব্যক্তিকে কীভাবে মর্গে নিয়ে যাওয়া হলো আমরা সেটা বুঝতে পারছি না।

জীবিত অবস্থায় মর্গে পৌঁছে যাওয়া পিটার বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করতে পারছি না তারা আমাকে কেন মর্গে পাঠালো। তারা বুঝল কী করে আমি মৃত? স্রষ্টাকে ধন্যবাদ জানাই আমার জীবন বাঁচিয়ে দেয়ার জন্য।’

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

 

E-mail: info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Ltd.

Request Mobile Site

Copyright © 2021 Eibela.Com
Developed by: coder71