বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯
বৃহঃস্পতিবার, ৬ই আষাঢ় ১৪২৬
 
 
সিরিজের শুরুতেই হেরে গেল বাংলাদেশ
প্রকাশ: ০৪:০৫ pm ১৩-০২-২০১৯ হালনাগাদ: ০৪:০৫ pm ১৩-০২-২০১৯
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরে সিরিজ শুরু করেছে বাংলাদেশ।

বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) নেপিয়ারে অনুষ্ঠিত ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশ গড়ে ২৩২ রান। এর জবাবে ব্যাট করতে নেমে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছাতে মোটেও বেগ পেতে হয়নি নিউজিল্যান্ডের। তবে নিউজিল্যান্ডের শুরুটা ছিলো সাবধানি। দুই ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও হেনরি নিকোলস মিলে গড়েন ১০৩ রানের জুটি। তবে নিউজিল্যান্ডের শুরুটা ছিলো সাবধানি। দুই ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও হেনরি নিকোলস মিলে গড়েন ১০৩ রানের জুটি। নিকোলসকে বোল্ড করে অবশ্য সেই জুটি ভাঙেন মিরাজ। ২৩তম ওভারে মিরাজের বল ঠিকমতো রুখতে না পারায় অদ্ভূত ভাবে তা আঘাত হানে স্টাম্পে, যদিও ততক্ষণে অবশ্য হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করে ফেলেছেন এই ওপেনার। ৮০ বল খেলে করেছেন ৫৩ রান। এটি ছিল নিকোলাসের সপ্তম হাফ সেঞ্চুরি।

অন্যদিকে মার্টিন গাপটিল তুলে নিয়েছেন ১৫তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি। নতুন নামা অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন থিতু হওয়ার চেষ্টা করেছিলেন ১১ রান তুলে। তাকে সাজঘরে ফিরিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তার বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে ফেরেন কিউই অধিনায়ক। যদিও শুরুতে অনফিল্ড আম্পায়ার নট আউট দিয়েছিলেন। রিভিউ নিলে তাতে সফল হয় বাংলাদেশ। পরে অবিচ্ছিন্ন ৯৬ রানের জুটিতে কোনও বিপদ ছাড়াই ৪৪.৩ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলে নিউজিল্যান্ড। ১১৬ বলে ১১৭ রানে অপরাজিত ছিলেন গাপটিল। তাতে ছিলো ৮টি চার ও ৪টি ছয়। অপর প্রান্তে রস টেলর ৪৯ বলে ৪৫ রানে অপরাজিত ছিলেন। তার ইনিংসে ছিলো ৬টি চার। ম্যাচসেরা হয়েছেন সেঞ্চুরি হাঁকানো গাপটিল।

১৩তম ওভারে অবশ্য ৫০ রান পার করে ফেলা জুটি ভাঙার সুযোগ পেয়েছিলো বাংলাদেশ। সাইফউদ্দিনের ওভারের প্রথম বলে দ্বিতীয় রান নিতে গিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভুগছিলেন মার্টিন গাপটিল। আক্রমাণাত্মক এই ওপেনার দেরি করে নন স্ট্রাইকিং প্রান্তে পৌঁছালেও সাইফের দুর্বল থ্রো স্টাম্প ভাঙতে পারেনি।

এ দিন টস জিতে ব্যাটিং নেওয়া বাংলাদেশের হয়ে মাঠে প্রথম ব্যাট করতে নামা মোহাম্মদ মিঠুনের ব্যাটে ভর দিয়ে ৪৮.৫ ওভারে সব ক’টি উইকেট হারিয়ে ২৩২ রান করতে পারে বাংলাদেশ। ৪২ রানে ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশ ১৩১ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় ডুবতে বসেছিলো সফরকারীরা। তাদের একক ৬২ রানের মাধ্যমে সেই লজ্জা থেকে দেশকে উদ্ধার করেছেন মিঠুন। ৯০ বলের ইনিংসে মাত্র ৫ চারের সহায়তায় করা ৬২ রানের ইনিংসই প্রমাণ করে তার মানসিকতা। মোহাম্মদ সাইফউদ্দীনের ব্যাট থেকে দলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান এসেছে। এই অল রাউন্ডার করেছেন ৪১ রান। এছাড়া সৌম্য সরকার ৩০ ও মেহেদী হাসান মিরাজ ২৬ রান করেন।

তবে অষ্টম উইকেটে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে সঙ্গে নিয়ে দলকে এগিয়ে দেন মিঠুন। এই জুটিতে ৮৪ রান করেন তাঁরা। আর সাইফউদ্দিন করেন ৫৮ বলে ৪১ রান।

অবশ্য এ দুজনের ব্যাটিং দৃঢ়তায় অন্যদের চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে, এই উইকেটেও ভালো কিছু করা অসম্ভব নয়। বিশেষ করে সাইফউদ্দিন শেষ দিকে যেভাবে খেলেছেন, তা সত্যিই অসাধারণ।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71