সোমবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৮
সোমবার, ৯ই মাঘ ১৪২৪
 
 
রোনালদো ও লিস্টার সিটির সোনালী বছর ২০১৬
প্রকাশ: ০৩:৪৭ pm ৩০-১২-২০১৬ হালনাগাদ: ০৩:৪৭ pm ৩০-১২-২০১৬
 
 
 


স্পোর্টস ডেস্ক : আন্তর্জাতিক ফুটবল অঙ্গনে ২০১৬ সালটা ছিল বেশ কিছু কারণে স্মরণীয়।তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো লিস্টার সিটির প্রথমবারের মত ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জয়।

অন্যদিকে টুর্নামেন্ট ফেবারিট না হয়েও ইউরো-২০১৬ শিরোপা জয় করে পর্তুগাল বিশ্ব ফুটবলকে করেছে বিস্মিত।আবার যেখানে লিস্টারের মত একটি ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, চেলসি, ম্যান সিটি, লিভারপুল, আর্সেনাল, টটেনহ্যামদের মত বাঘা বাঘা ক্লাবদের হটিয়ে ইংলিশ ফুটবলকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে সেখানে বিমান দূর্ঘটনায় ব্রাজিলিয়ান ক্লাব শাপেকোয়েন্সের সকল খেলোয়াড় ও কর্মকর্তার মৃত্যু পুরো বিশ্বকে কাঁদিয়েছে।

২০১৬ সালের বিশ্ব ফুটবলে উল্লেখযোগ্য কিছু ঘটনা পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো:

লিস্টার সিটির রূপকথার কাহিনী:    

২০১৫-১৬ মৌসুমে লিস্টারের কিং পাওয়ার স্টেডিয়ামে যে ইতিহাস রচিত হয়েছে তা ইংলিশ ফুটবলে এর আগে কখনই হয়নি। আধুনিক বিশ্ব ফুটবলে লিস্টার সিটির প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জয় রূপকথার কাহিনীকেও যেন হার মানায়। মৌসুমের শুরুতে যেখানে বাজিকরদের বাজির দর লিস্টারের পক্ষে ছিল ৫০০০-০১ সেখানে মৌসুম শেষে টেবিলের শীর্ষে থাকাটা বিস্ময়করই বটে। ২০১৬ সালের শুরুর দিকে শিরোপা প্রত্যাশী টটেনহ্যাম হটস্পার ও ম্যানচেস্টার সিটিকে হারানোর মাধ্যমে বছরের শুরুটাও দারুণ করেছিল লিস্টার । দ্বিতীয় স্থানে থাকা আর্সেনালের তুলনায় ১০ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে ক্লডিও রানেইরির দল শেষ পর্যন্ত শিরোপা ঘরে তুলে বাজিকর ও ফুটবল পুন্ডিতদের সমালোচনার যথার্থ জবাব দেয়।

রোনালদোর স্মরণীয় বছর :

রিয়াল মাদ্রিদ তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর বছর শুরু হয়েছিল বার্সেলোনা প্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসির কাছে ব্যালন ডি'অর খেতাব হারিয়ে। মৌসুমের শেষে বার্সেলোনা লা লিগার শিরোপা জয় করলেও রোনালদোর রিয়াল মাদ্রিদ দ্বিতীয় স্থানে থেকে লিগ শেষ করে। কিন্তু তারপরেও রোনালদোর গোল চ্যাম্পিয়নস লিগে রিয়ালকে ১১ বারের মত শিরোপা জয়ে সহযোগিতা করে। লিগ রাউন্ড শেষে শেষ ১৬ এবং তারপর উল্ফসবার্গের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে রোনালদোর দূর্দান্ত পারফরমেন্সে আরো এগিয়ে যাওয়া এবং সবশেষে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী আতলাটিকোকে স্পট কিকে হারিয়ে ১১ বারের মত শিরোপা জয়- এসব অর্জনে সিআর সেভেনের অবদান ছিল সর্বাগ্রে।

এরপর সুযোগ আসে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে দেশকে কিছু উপহার দেওয়ার। তাতেও পর্তুগালকে হতাশ করেননি রোনালদো। গ্রুপ পর্ব শেষে নক আউট পর্ব পেরিয়ে ফাইনালে স্বাগতিক ফ্রান্সকে হারিয়ে প্রথমবারের মত ইউরোর শিরোপা জয়ে পর্তুগালকে করেছেন গর্বিত। এর আগে অবশ্য ফাইনালে হাঁটুর ইনজুরির কারণে রোনালদোকে দুঃশ্চিন্তায় মাঠ ত্যাগ করতে হয়েছিল। তার পরিবর্তে পর্তুগালের জন্য ত্রাতার ভূমিকায় উত্তীর্ণ হন এডার। অতিরিক্ত সময়ে তার দেওয়া একমাত্র গোলেই পর্তুগাল প্রথমবারের মত বড় কোন টুর্নামেন্টে শিরোপা স্বাদ পায়। বছর শেষে অবশ্য আবারো মেসির কাছ থেকে ব্যালন ডি'অর খেতাব নিজের করে নিয়েছেন রোনালদো।

রিওতে জার্মানি, ব্রাজিলের সোনা জয়; নিজ নিজ লিগে জুভেন্টাস, পিএসজি, বায়ার্নের আধিপত্য :

বছর জুড়ে অন্যান্য বড় ফুটবল ইভেন্টে মধ্যে অন্যতম ছিল রিও অলিম্পিকের ফুটবল ইভেন্ট। নারীদের বিভাগে জার্মানি সোনা জয় করলেও পুরুষদের বিভাগে সোনা জয় করে অধরা স্বপ্ন পূরণ করেছে স্বাগতিক ব্রাজিল। অথচ নারীদের ফুটবলে যুক্তরাস্ট্র ও ব্রাজিলের মত শক্তিশালী দলগুলো সুস্পষ্ট ফেবারিট ছিল। এই বিভাগে সুইডেন রুপা ও কানাডা ব্রোঞ্জ পদক জিতেছে। অন্যদিকে পুরুষদের বিভাগে জার্মানি রুপা ও নাইজেরিয়া জিতেছে ব্রোঞ্জ।

ইউরো ২০১৬ তে অসাধারণ পারফরমেন্সের কারণে ওয়েলস ও আইসল্যান্ড গোটা বিশ্বের প্রশংসা কুড়িয়েছে। টুর্নামেন্টে সেমিফাইনালে ওয়েলস পর্তুগালের কাছে পরাজিত হয়ে বিদায় নেয়। অন্যদিকে আইসল্যান্ড খেলেছে শেষ আটে।

ইতালিতে জুভেন্টাস টানা পঞ্চম লিগ শিরোপা জয় করেছে। এদিকে টানা চতুর্থবারের মত ৩১ পয়েন্ট নিয়ে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে প্যারিস সেইন্ট-জার্মেই। জার্মানিতে বায়ার্ন মিউনিখ টানা চতুর্থ শিরোপা জিতেছে।

বিমান দূর্ঘটনায় ফুটবলারদের মৃত্যুতে কাঁদল গোটা বিশ্ব:

কোপা সুদামেরিকানা ফাইনালে খেলার উদ্দেশে কলম্বিয়া যাত্রার সময় ব্রাজিলিয়ান ক্লাব শাপেকোয়েন্স দলকে বহনকারী বিমান দূর্ঘটনার কবলে পড়ে বিধ্বস্ত হলে মাত্র ৩ জন খেলোয়াড় বাদে বাকি সবাই নিহত হন। যদিও পরবর্তীতে কোপা সুদামেরিকানার শিরোপা শাপেকোয়েন্সকে দেবার সিদ্ধান্ত নেয় দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা। এই ঘটনায় পুরো ফুটবল বিশ্ব বছর শেষে শোকে মুহ্যমান ছিল।

এইবেলাডটকম/এফএআর

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
Loading...
 
 
 
Loading...
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71