শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯
শনিবার, ৫ই শ্রাবণ ১৪২৬
 
 
এনটিআরসি কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত হিন্দু শিক্ষিকাকে নির্ধারিত সময়ে যোগদান করতে দেয়নি আজিজুল হক ডিগ্রী কলেজ কর্তৃপক্ষ
প্রকাশ: ০৫:৪২ pm ২৩-০২-২০১৯ হালনাগাদ: ০৫:৪২ pm ২৩-০২-২০১৯
 
​​​​​​​উজিরপুর (বরিশাল) প্রতিনিধি.
 
 
 
 


বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যায়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসি) কর্তৃক সুপারিশকৃত বীনা সমদ্দার নামক এক শিক্ষিকাকে নির্ধারিত তারিখ পর্যন্ত (২৩ ফেব্রুয়ারী  বেলা ১২টা ) তার পদে যোগদান করতে দেয়নি বরিশালের উজিরপুর উপজেলার হাবিবপুর সৈয়দ আজিজুল হক ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ সাহাদাত হোসেন। বিভিন্ন চেষ্টা তদবির করেও ওই কলেজে যোগদানে ব্যর্থ হয়ে অসহায় বীনা সমদ্দার বরিশালের জেলা প্রশাসক, বরিশাল বোর্ডের চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, উজিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন। 

এনটিআরসির চুরান্ত নিয়োগ ও যোগদানের নির্দেশনাপত্র এবং বীনা সমদ্দারের লিখিত অভিযোগে জানা গেছে উজিরপুর উপজেলার হাবিবপুর সৈয়দ আজিজুল হক ডিগ্রী কলেজের এনটিআরসিতে প্রেরিত চাহিদা অনুযায়ী প্রভাষক (বাংলা) এমপিওভুক্ত পদে এনটিআরসিতে আবেদন করেন বীনা সমদ্দার, ৯ম ব্যাচে তার রোল নাম্বার ছিলো ৪০১০০০২৯। মেধা তালিকা অনুযায়ী এনটিআরসি বেশিনিক/ শিশি/বেশিপ্রশি,নি/ ৮৫৪/২০১৮/২৩৫ নং স্বারকে উক্ত কলেজে  ২৩ ফেব্রুয়ারীর মধ্যে বীনা সমদ্দারকে যোগদান করানোর জন্য অধ্যক্ষ বরাবরে নির্দেশ সম্বলিত সুপারিশ করা হয়। এনটিআরসি থেকে সুপারিশকৃত সকল কাগজপত্র সংগ্রহ করে বীনা সমদ্দার গত ৯ ফেব্রুয়ারী যোগদানের জন্য কলেজ অধ্যক্ষ সাহাদাত হোসেনের সাথে দেখা করেন এবং যোগদানপত্র দেওয়ার অনুরোধ করেন। বীনা সমদ্দারকে তার কলেজে যোগদানের নির্দেশনার কাগজপত্র দেখে অধ্যক্ষ সাহাদাত অত্যন্ত চাতুরতার সাথে বীনাকে যোগদান করতে না দিয়ে সময় ক্ষেপন করতে থাকেন। ৯ ফেব্রুয়ারী থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত বীনা সমদ্দার প্রতিদিন কলেজ অধ্যক্ষকে যোগদানের জন্য বার বার অনুরোধ করে ব্যর্থ হওয়ার পরে গত ১৮ ফেব্রুয়ারী বীনা সমদ্দার বরিশালের জেলা প্রশাসক, বরিশাল বোর্ডের চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, উজিরপুর উপজেলা নির্বাহীঅফিসার, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন এবং ২১ ফেব্রুয়ারী ঘটনাটি বরিশাল ২ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ শাহে আলম এবং উজিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান ইকবালকে জানালে তারা ওইদিনই অধ্যক্ষ সাহাদতকে উজিরপুরে ডেকে এনে নির্ধারিত সময় ২৩ ফেব্রুয়ারীর মধ্যে বীনা সম্দ্দারকে কলেজে যোগদান করিয়ে নিতে নির্দেশ দেন। তারপরেও অধ্যক্ষ সাহাদাত বিভিন্ন টাল বাহানা করে কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সৈয়দ মাইনুল হকের সাথে বীনাকে যোগাযোগ করতে বলেন, এ কথা শুনে ২২ ফেব্রুয়ারী সকালে বীনা ও তার স্বামী সৈয়দ মাইনুল হকের ঢাকার বাসায় গিয়ে দেখা করেন এবং এনটিআরসির নির্দেশনা মোতাবেক তাকে কলেজে যোগদান করতে দেওয়ার অনুরোধ করেন। এ কথা শুনে সৈয়দ মাইনুল হক তাদেরকে বিভিন্ন উপদেশ দিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেন বলে বীনার স্বামী অমৃত লাল বিশ্বাস অভিযোগ করেছেন। এ অবস্থায় বীনা সমদ্দার নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ওই কলেজে যোগদান করতে না পেরে চরম হতাশায় ভুগছেন। 

এ বিষয়ে হাবিবপুর সৈয়দ আজিজুল হক ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ সাহাদাত হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন এনটিআরসিতে শুন্য পদে আমার দেওয়া চাহিদা মোতাবেক বীনা সমদ্দারকে এনটিআরসি আমার কলেজে নিয়োগ দিয়ে যোগদান করার নির্দেশনা সহ সুপারিশ করে পাঠিয়েছ, তবে কলেজের কিছু জটিলতা ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির অনিচ্ছা থাকার কারনে বীনা সমদ্দারকে তার কলেজে যোগদান করাতে সমস্যা হয়ে। 

নি এম/কল্যান 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71