শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০
শনিবার, ৯ই কার্তিক ১৪২৭
সর্বশেষ
 
 
ভারতের ৩৮ হাজার বর্গ কিলোমিটার জমি জবরদখল করেছে চীন: রাজনাথ
প্রকাশ: ১১:১৬ pm ১৮-০৯-২০২০ হালনাগাদ: ১১:১৬ pm ১৮-০৯-২০২০
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


চীন যে ভারতের জমি বেআইনিভাবে দখল করেছে সেটা শেষ পর্যন্ত স্বীকার করে নিলেন ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। তবে চীনের এই দখলদারি কখন কিভাবে তা সংসদে স্পষ্ট করেননি তিনি। 

বৃহস্পতিবার লাদাখ ইস্যু নিয়ে বিবৃতি দিতে গিয়ে প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানান, চীন এখনও বেআইনিভাবে কেন্দ্রশাসিত লাদাখে প্রায় ৩৮ হাজার বর্গ কিলোমিটার জমি দখল করে রেখেছে। পাকিস্তান তথাকথিত সিনো-পাকিস্তান এলাকা থেকে আরও ৫ হাজার ১৮০ বর্গ কিলোমিটার জায়গা চীনের হাতে তুলে দিয়েছে। এছাড়াও চীন ভারতের দখলে থাকা আরও ৯০ হাজার বর্গ কিলোমিটার জমিকে নিজেদের জমি বলে দাবি করছে। 

তবে কোন আমলে ভারতের কোন জমি চীন দখল করেছে তা এদিন স্পষ্ট করেননি প্রতিরক্ষামন্ত্রী। তবে অন্যভাবে প্রতিরক্ষামন্ত্রী বোঝাতে চেয়েছেন, কংগ্রেসের আমলে চীন যতটা ভারতের এলাকা দখল করেছিল, বর্তমানে ঠিক সেটাই আছে। তবে নতুন করে কোনও জমি দখল করেছে কিনা চীন তার কোনও তথ্য প্রতিরক্ষামন্ত্রী দেননি। তবে, চীন ১৯৯৩ এবং ১৯৯৬ সালে হওয়া দ্বিপাক্ষিক চুক্তিকে সম্মান করছে না বলে রাজনাথ এদিন অভিযোগ করেন।

দেশের সার্বভৌমত্ব ও অখন্ডতা বজায় রাখার লক্ষ্যে কেন্দ্রের অবস্থান স্পষ্ট করে দিয়ে সংসদের অধিবেশনে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেন, লাদাখে চীন-ভারত সীমান্তে উত্তেজনার পরিবেশ রয়েছে। তবে এমন কোনও শক্তি পৃথিবীতে নেই, যারা সীমান্ত এলাকায় ভারতীয় বাহিনীর টহলদারি আটকাতে পারবে। ভারত সমস্ত ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত। চীনা আগ্রাসনের জেরে পূর্ব লাদাখে সীমান্ত এলাকায় উত্তেজনার পরিবেশ তৈরি হয়েছে। কিন্তু সেনাবাহিনীর জওয়ানদের টহলদারির নিয়মে কোনও পরিবর্তন করা হবে না। 

প্রতিবেশি চীনকে পরোক্ষে কঠোর বার্তা দিয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেন, সীমান্তে উত্তেজনার পরিবেশ তৈরির নেপথ্যে চীনের বেআইনি আগ্রাসন নীতি রয়েছে। ভারতীয় সেনা কঠোর হাতে দমন করছে শুধু নয়, চীনের সেনাবাহিনীর গতিবিধির ওপর নজর রাখছে। যুদ্ধ শুরুটা আমাদের হাতে থাকলেও যুদ্ধের শেষটা কিন্তু আমাদের হাতের মধ্যে থাকবে না। আমরা শান্তিপূর্ণ সমঝোতায় যেতে চাই। 

প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘চীন যেটা বলছে, আর চীন যেটা করছে তার মধ্যে বিস্তর পার্থক্য রয়েছে। কেননা গালওয়ানে ও প্যাংগং লেক সংলগ্ন এলাকায় চীন প্ররোচনামূলক সেনা আগ্রাসন ঘটিয়েছে’।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

 

E-mail: info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Ltd.

Request Mobile Site

Copyright © 2020 Eibela.Com
Developed by: coder71