সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭
সোমবার, ৪ঠা পৌষ ১৪২৪
 
 
বিমানের খাবার নীরস হবার কারণ
প্রকাশ: ০৪:০৯ am ০৬-০৬-২০১৫ হালনাগাদ: ০৪:০৯ am ০৬-০৬-২০১৫
 
 
 



লাইফ-স্টাইল ডেস্কঃ বেশির ভাগ বিমান যাত্রীই হয়তো মনে মনে নিজেদের বার বার এই প্রশ্নটি করেছেন, কেন বিমানের সরবরাহ করা খাবার এতো বিস্বাদ হয়? মাছ, মুরগি এমনকি পাস্তা যাই দেয়া হোক না কেন নীচে থাকলে যা খেতে সুস্বাদু এবং মুখরোচক লাগে বিমানে ওঠার পর তার স্বাদ কেন এতোটাই পাল্টে যায়?

এই রহস্যের সমাধান করে এই বিষয়ে কয়েকটি বিস্ময়কর তথ্য দিয়েছেন জার্মান বিমান সংস্থা লুফথানসার রন্ধন উন্নয়ন বিষয়ক নির্বাহী শেফ গ্র্যান্ট মিকেল।

তার তথ্য অনুযায়ী, বিমানে খাবারের স্বাদ ভালো না লাগার পিছনে মূল কারণ কিন্ত খাবার নয় উচ্চতা। অর্থাৎ উচ্চতার কারণেই এই বিভ্রাটের সৃষ্টি হচ্ছে।

তিনি জানান, ৩৫ হাজার ফুট উচ্চতায় খাবারের স্বাদের অনুভূতি বদলে যায়। খাদ্যের মান এবং উপাদান নয় বরং কি পরিস্থিতিতে যাত্রীরা খাবার খাচ্ছেন সেটাই এই স্বাদ বদলের পিছনে দায়ী।

রেস্টুরেন্টে খেতে যা সুস্বাদু লাগে তাই বিমানে ওঠার পর কেন বিস্বাদ হয়ে যায়- এই বিষয়ে জার্মানির ফ্রনহোফার ইনস্টিটিউট নামের গবেষণা প্রতিষ্ঠান একটি গবেষণা করে।

গবেষকরা দেখতে পান, অধিক উচ্চতায়, বিমানের কেবিনের ঠাণ্ডা এবং শুষ্ক পরিবেশে মানুষের জিহবার স্বাদের অনুভূতি কমে যায়। এছাড়া মিষ্টতা এবং নোনতা উপলব্ধি করার অনুভূতিও প্রায় ৩০ ভাগ কমে যায়।

বিমানের শুষ্ক পরিবেশে খাবারের গন্ধ নেয়ার ইন্দ্রিয়গুলির অনুভূতিও ভোঁতা হয়ে যায়। ফলে স্বাভাবিক খাদ্যের গন্ধ ঠিকমতো উপলব্ধি করা যায় না।
যদিও স্বাদের অনুভূতি কমে যাবার কারণেই মূলত বিমানের খাবার বিস্বাদ লাগে। তবে খাদ্য বিস্বাদ লাগার পিছনে আরো একটি কারণও রয়েছে বলে জানান বিজ্ঞানী এবং ‘অন ফুড অ্যান্ড কুকিং: দ্য সায়েন্স অ্যান্ড লোর অব দ্য কিচেন’ বইয়ের লেখক হ্যারল্ড ম্যাকগি।
তিনি বলেন, রান্নাঘরে খাবার তৈরি করার পর তা সংরক্ষণ করে বিমানে নেয়া, তারপর আবার গরম করে যাত্রীদের সরবরাহ করতে বেশ সময় অতিবাহিত হয়। ফলে স্বাভাবিকভাবেই খাবারের স্বাদ একটু কমে যেতে পারে। এছাড়া খাবার আবারো গরম করার ফলে তা খেতে শুকনো শুকনো লাগে।

তবে বিমানের যাত্রীদের জন্য আশার খবর হচ্ছে, লুফথানসা কর্তৃপক্ষ বিমানের খাবার সুস্বাদু করার জন্য ব্যাপক পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে।
সূত্র: ২৪ ঘণ্টা

এইবেলা ডট কম/ এসবিএস
 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
Loading...
 
 
 
Loading...
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক: সুকৃতি কুমার মন্ডল

Editor: ‍Sukriti Kumar Mondal

সম্পাদকের সাথে যোগাযোগ করুন # sukritieibela@gmail.com

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

   বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ:

 E-mail: sukritieibela@gmail.com

  মোবাইল: +8801711 98 15 52 

            +8801517-29 00 01

 

 

Copyright © 2017 Eibela.Com
Developed by: coder71