রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯
রবিবার, ২রা আষাঢ় ১৪২৬
 
 
চিতলমারীর চরবড়বাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠানে ইভটিজিংয়ে বাধা দেয়ায় তান্ডব
প্রকাশ: ১২:৪২ pm ০৬-০৩-২০১৯ হালনাগাদ: ১২:৪২ pm ০৬-০৩-২০১৯
 
চিতলমারী (বাগেরহাট) প্রতিনিধি
 
 
 
 


বাগেরহাটের চিতলমারীর চরবড়বাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানে বখাটেদের ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় অনুষ্ঠান পন্ড হয়েছে বলে বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি জানিয়েছেন। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সুষ্ঠু মিমাংসার চেষ্টা করছেন। বড়বাড়ীয়া পুলিশ ফাড়ির প্রতিনিধিরা উপস্থিত হয়ে লিখিত অভিযোগ জানানোর জন্য বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে বলেছেন।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন অভিযোগ দায়ের হয়নি। স্থানীয়ভাবে মিমাংশার চেষ্টা চলছে বলে জানা গেছে।

চরবড়বাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি কুবলয় বাকচী জানান, ‘মঙ্গলবার দুপুর আনুমানিক ১টা দেড়টার দিকে চরবড়বাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে চলমান বাৎসরিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানে হিজলা থেকে আগত ১০/১২ জন বখাটে অনুষ্ঠানে উপস্থিত মেয়েদের ইভটিজিং করছিল। শংখলা রক্ষার দায়িত্বে থাকা ভলান্টিয়ারা তাতে বাধা দিলে উক্ত বখাটেরা তাদের উপর চড়াও হয়ে মারধর শুরু করে। এতে টুঙ্গিপাড়া সরকারী কলেজের ছাত্র সুজয় আহত হয়ে লাইব্রেরি কক্ষে ঢুকে আশ্রয় নেয়। সেখানেও বখাটেরা লাইব্রেরির দরজা ভেঙে সুজয়কে মারতে উদ্ধ্যত হলে অনুষ্ঠানের শৃংখলারক্ষাকারীরা হিজলা গ্রামের রিয়াজ খানের পুত্র তপু খানকে লাইব্রেরিতে আটকে রাখে। কর্তৃপক্ষ তার অভিভাবকদের আসার জন্য অপেক্ষায় থাকলে হিজলা থেকে ৪০/৪২ জন বখাটে এসে বিদ্যালয়ের লাইব্রেরির দরজা, জানালার গ্রীল ভেঙে আটক তপু খানকে ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এ সময় আমি সেখানে উপস্থিত হলে বখাটেদের আঘাতে আমিও আহত হই। লাইব্রেরিতে বখাটেরা ভাংচুর চালিয়ে অনেক ক্ষতিসাধন করেছে। তাদের তান্ডবের ভয়ে বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীরা অনুষ্ঠান ত্যাগ করে বাড়ী চলে যায়। ফলে অনুষ্ঠান স্থগিত ঘোষনা করতে বাধ্য হই।’

তিনি আরো জানান, ‘ঘটনার পরে বড়াবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদ সর্দার বিদ্যালয় পরিদর্শন করেছেন এবং এর সুষ্ঠু বিচারের ব্যবস্থা করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন। এছাড়া বড়বাড়ীয়া পুলিশ ফারির প্রতিনিধি, খসরু আহম্মেদ, প্রাক্তন ইউপি চেয়ারম্যান অহিদুজ্জামান পান্না, হিজলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বাদশা মিয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সামাজিকভাবে মিমাংসার আশ্বাস প্রদান করেছেন।’

চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অনুকুল সরকার জানান, ঘটনার কথা শুনেছি। কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নি এম/বিভাষ

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71