মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯
মঙ্গলবার, ১লা শ্রাবণ ১৪২৬
 
 
বনানীতে চিরনিদ্রায় শায়িত সৈয়দ আশরাফ
প্রকাশ: ১০:২৯ am ০৭-০১-২০১৯ হালনাগাদ: ১০:২৯ am ০৭-০১-২০১৯
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


রাজধানীর বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, সাবেক জনপ্রশাসনমন্ত্রী ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। 

রবিবার আসরের পর রাজধানীর বনানী কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

এর আগে সকাল সাড়ে ৯টায় আওয়ামী লীগের এই বর্ষীয়ান নেতার মরদেহ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের হিমাগার থেকে সংসদ ভবন কমপ্লেক্সে আনা হয়। ১০টা ৩৪ মিনিটে অনুষ্ঠিত জানাজায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, চীফ হুইপ আসম ফিরোজ, মন্ত্রী, আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা, বিশিষ্ট ব্যক্তি এবং সর্বস্তরের হাজারো মানুষ অংশ নেন। সৈয়দ আশরাফকে ‘গার্ড অব অনার’ প্রদান করা হয়।

জানাজা শেষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ও আওয়ামী লীগ নেতারা তার কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নেতাদের সঙ্গে নিয়ে সৈয়দ আশরাফের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনা।

এর আগে তিনটি নামাজে জানাজা শেষে রবিবার বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে তার মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্স বনানী কবরস্থানে এসে পৌঁছায়। দুপুর থেকেই নেতা-কর্মীরা তাদের প্রিয় নেতা সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে চিরবিদায় জানাতে উপস্থিত হতে থাকেন বনানী কবরস্থানে।

বনানী কবরস্থানে তাকে চিরনিদ্রায় শায়িত করানোর পর কবরকে ঘিরে শ্রদ্ধা আর হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসা নিয়ে উৎসুক জনতার ভিড় করে আছেন চারদিকে। কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা ভালোবাসা জানাচ্ছেন অনেকেই।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের অস্থায়ী সরকারের রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের সন্তান সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বাবার দেখানো পথেই হেঁটেছেন রাজনীতির দীর্ঘসময়। অথচ এত সমৃদ্ধময় জীবনগল্পে আত্মঅহমিকার লেশমাত্র ছিল না তার। বিনয়ী, মৃদুভাষী আর বিচক্ষণতার মধ্য দিয়েই তিনি সকলের ‘আশরাফ ভাই’ বলে পরিচিতি পান। তাকে হারিয়ে কাঁদছে মানুষ, কাঁদছে রাজনৈতিক অঙ্গনের নেতৃবৃন্দ।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71