বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
বৃহঃস্পতিবার, ১০ই ফাল্গুন ১৪২৪
 
 
প্রস্তাবিত বেতন কাঠামোর প্রতিবাদে খুবি ও সিকৃবির কর্মসূচি
প্রকাশ: ০৮:২৫ pm ০১-০৬-২০১৫ হালনাগাদ: ০৮:২৫ pm ০১-০৬-২০১৫
 
 
 


শিক্ষা ডেস্ক:
প্রস্তাবিত পে-স্কেল পুননির্ধারণের দাবিতে কর্মসূচি অব্যহত রেখেছে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের  শিক্ষক সমিতি।

সোমবার  খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ও সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ক্যাম্পাসে মানববন্ধন  করে।

আমাদের খুবি সংবাদদাতা জানান, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক ড. সরদার শফিকুল ইসলাম।

মানববন্ধনে শিক্ষকদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বলেন, সুপারিশকৃত পে-স্কেলে আর্থিক দিকের চেয়ে শিক্ষকদের মর্যাদার বিষয়টি বেশি জড়িত।

তিনি বলেন, প্রস্তাবিত বেতন কাঠামোতে সিনিয়র প্রফেসরদের অবস্থান দেখে আমরা হতাশ হয়েছি, অপমান বোধ করছি। এ সুপারিশে শিক্ষকদের মর্যাদার ওপর আঘাত করা হয়েছে।

উপাচার্য আরও বলেন, আমি বিশ্বাস করি শিক্ষা ও শিক্ষকবান্ধব এ সরকার শিক্ষকদের অমর্যাদা হয় এমন কিছু করবে না।

তিনি এই বেতন কাঠামোর সুপারিশ মন্ত্রিসভায় যাওয়ার আগে তা সংশোধন করে পুনরায় পেশ করার আহবান জানান।

ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বলেন, আমরা বিশ্বাস করি শিক্ষকদের অনুরাগের প্রতি, শিক্ষকদের মর্যাদার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত সচেতন এবং বিষয়টা তিনি সহানুভূতির সঙ্গে বিবেচনা করবেন।

মানববন্ধনের প্রাক্কালে সূচনা বক্তব্য রাখেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মো. সারওয়ার জাহান।


আমাদের সিকৃবি সংবাদদাতা জানান, প্রস্তাবিত অষ্টম জাতীয় বেতন কাঠামোতে সচিব কমিটির বৈষম্যমূলক সুপারিশের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (সিকৃবি) শিক্ষক সমিতি। সোমবার বেলা ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. মৃত্যুঞ্জয় কুন্ডের সঞ্চালনায় মানবন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. গোলাম শাহি আলম। শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ নূর হোসেন মিঞার সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

বক্তারা প্রস্তাবিত বেতন কাঠামো নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে তা পুনর্নির্ধারণের দাবি জানিয়ে বলেন, প্রস্তাবিত বেতন কাঠামোতে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের ‘অবমূল্যায়ন’ করা হয়েছে।

শিক্ষক নেতারা বলেন, সিনিয়র অধ্যাপকদের বেতন স্কেল সিনিয়র সচিবদের সমান ও অধ্যাপকদের বেতন স্কেল পদায়িত সচিবদের সমান করে পুনর্নির্ধারণের এবং শিক্ষকদের সিলেকশন গ্রেড ও টাইম স্কেল রাখা এবং সহযোগী-সহকারী অধ্যাপক ও প্রভাষকদের বেতন কাঠামো অধ্যাপকদের বেতনের সঙ্গে সামজ্ঞাস্যপূর্ণ করার দাবি জানান।ৎ

এইবেলাডটকম/এসএম
 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71