সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮
সোমবার, ৮ই শ্রাবণ ১৪২৫
 
 
পাঞ্জাবে মন্দির থেকে মূর্তি চুরির ঘটনায় আদালতের ক্ষোভ 
প্রকাশ: ০৪:২৫ pm ১৫-১২-২০১৭ হালনাগাদ: ০৪:২৭ pm ১৫-১২-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


পাকিস্তানে পাঞ্জাব প্রদেশের চকওয়ালে ঐতিহাসিক কাটাস রাজ মন্দির চত্বর থেকে ভগবান রাম ও হনুমানের মূর্তির নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করল পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট। 

মন্দির চত্বরের পবিত্র পুকুরের জল শুকিয়ে যাওয়ার ঘটনা নিয়ে একটি মামলার শুনানিতে প্রধান বিচারপতি সাকিব নিসার জানতে চেয়েছেন, কর্তৃপক্ষের কাছে কি আদৌ মূর্তিগুলি রয়েছে, নাকি সরানো হয়েছে। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের ভিত্তিতে প্রসঙ্গটি উত্থাপন করেন বিচারপতি নিসার। 

খবরে বলা হয়, নিকটবর্তী সিমেন্ট কারখানাগুলি বোরওয়েলের মাধ্যমে প্রচুর পরিমাণে জল তুলে নেওয়ার কারণে কাটাস রাজ মন্দিরের পুকুরের জল কমে যাচ্ছে। কারণ এর ফলে ভূগর্ভে জলস্তর নিচে নেমে গিয়েছে।

শুনানির সময় বিচারপতি নিসারের নেতৃত্বাধীন তিন বিচারপতির বেঞ্চ ওই এলাকার সিমেন্ট কারখানাগুলিকে ধ্বংসাত্মক বলে অভিহিত করেন। মন্দির সংলগ্ন কারখানাগুলির নামও জানতে চায় সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ। উদ্বাস্তু ট্রাস্ট সম্পত্তি পর্ষদের আইনজীবী এই ঘটনার জন্য প্রাক্তন চেয়ারম্যান আসিফ হাসমিকে দায়ী করেন। তাঁর অভিযোগ, হাসমি চেয়ারম্যান থাকাকালে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে দেশ ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছেন।

কাটাস রাজ মন্দির খুবই বিখ্যাত। কাটাস নাম এসেছে সংস্কৃত শব্দ থেকে, যার অর্থ জলভরা চোখ। কিংবদন্তী অনুসারে, সতীর মৃত্যুর পর শোকে কেঁদেছিলেন শিব। তাঁর চোখের জল থেকেই এই পুকুরের উৎপত্তি। ২০০৫-এ পাকিস্তান সফরে এসে বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আডবাণী কাটাস রাজ মন্দিরে গিয়েছিলেন এবং পাকিস্তান সরকারের সংরক্ষণ কাজের উদ্বোধন করেছিলেন।


আরপি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71