শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১
শনিবার, ১৬ই শ্রাবণ ১৪২৮
সর্বশেষ
 
 
পহেলা বৈশাখেও ফের সুনামগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলা
প্রকাশ: ১১:৩৩ pm ১৪-০৪-২০২১ হালনাগাদ: ১১:৩৪ pm ১৪-০৪-২০২১
 
সুনামগঞ্জ সংবাদদাত
 
 
 
 


ভটিজিংয়ের সামাজিক শাস্তির জের ধরে পহেলা বৈশাখেও সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের টাকাটুকিয়া গ্রামে নিরীহ এক হিন্দু বাড়িতে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়েছে একদল বখাটে। হামলায় বৃদ্ধ ও নারীসহ ৮ জন আহত হয়েছে।

বুধবার দুপুর দেড়টায় দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়নের টাকাটুকিয়া গ্রামের দেবেন্দ্র বর্মণের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে তাহিরপুর থানা পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, টাকাটুকিয়া গ্রামের বর্মণ পাড়ার স্কুল পড়ুয়া ছাত্রীদের দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করত পার্শ্ববর্তী টুকেরগাঁও গ্রামের কাশেম মিয়া, লাইট মিয়া, মুসা মিয়া, পাবেল মিয়া। এ নিয়ে চার মাস পূর্বে টাকাটুকিয়া গ্রামে জামালগড়, রসুলপুর ও টুকেরগাঁও গ্রামের গণ্যমান্যদের উপস্থিতিতে শালিস হয়েছিল। ভবিষ্যতে এমন কাজ করবে না বলে শালিসে অঙ্গিকার করেন কাশেম মিয়া, লাইট মিয়া, মুসা মিয়া, পাবেল মিয়া। শালিসে অভিযুক্তদের কান ধরে উট বস করানো হয়। কিন্তু এরপরও নানাভাবে বর্মণ পাড়ার মেয়েদের বিরক্ত করত তারা। সামাজিক বিচারে অপমানের জের ধরে আজ বুধবার দুপুরে দেবেন্দ্র বর্মণের ছেলে সঞ্চিত বর্মনকে রাস্তায় এক পেয়ে মারধর করে টুকেরগাঁও গ্রামের অভিযুক্তরা। তার চিৎকার শুনে পরিবারের লোকজন রক্ষা করতে গেলে তাদেরকেও মারধর করে। এরপর টুকেরগাঁও গ্রামের ২০-২৫ জন টাকাটুকিয়া গ্রামের দেবেন্দ্র বর্মণের বাড়িতে হামলা চালায়। হামলাকারীরা বাড়ির পুরুষ মহিলাদের বেধম মারপিট করে।

হামলায় আহত হয়েছে দেবেন্দ্র বর্মন (৭০), তার ছেলে বাছিন্দ্র বর্মণ (৫০), সত্যেন্দ্র বর্মণ (৪৫), সঞ্চিত বর্মণ (৩০) বাছিন্দ্র বর্মণের স্ত্রী বিউটি বর্মণ (৪৫), ছেলে বাবলু বর্মণ (১৭), শিপলু বর্মণ (১৫) ও তাদের আত্মীয় দেবল বর্মণ (২২)। হামলায় গুরুত্বরভাবে জখম হয়েছেন দেবেন্দ্র বর্মন, বাছিন্দ্র বর্মণ, বাবলু বর্মণ। তাদেরকে তাৎক্ষণিক তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছিল। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার মির্জা রিয়াদ হাসান জানান, টাকাটুকিয়া গ্রামের তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তাদের শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদেরকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল লতিফ তরফদার জানান, টাকাটুকিয়া গ্রামের বর্মণ পাড়ার মেয়েদেরকে পার্শ্ববর্তী টুকেরগাঁও গ্রামের কিছু বখাটে উত্যক্ত করত। এর জের ধরে আজ বর্মণ পাড়ার এক ছেলেকে রাস্তায় পেয়ে মারধর করেছে টুকেরগাঁও গ্রামের ছেলেরা। তার চিৎকার শুনে পরিবারের লোকজন রক্ষা করতে গেলে তাদেরকেও নাকি মারধর করেছে। তিন জন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

নি এম/বিন্দু তালুকদার

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

 

E-mail: info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Ltd.

Request Mobile Site

Copyright © 2021 Eibela.Com
Developed by: coder71