শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮
শুক্রবার, ৪ঠা কার্তিক ১৪২৫
 
 
জাভায় ভূমিকম্পে ৩ জনের মৃত্যু
প্রকাশ: ০৮:১৪ pm ১৭-১২-২০১৭ হালনাগাদ: ০৮:১৪ pm ১৭-১২-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


ভূমিকম্পে ইন্দোনেশিয়ার প্রধান দ্বীপ জাভায় ৩ জন মারা গিয়েছেন বলে শনিবার জানিয়েছেন জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা সংস্থার মুখপাত্র সুতোপো পুরয়ো নুগ্রোহো। রিখটার স্কেলে শুক্রবার রাতের ওই কম্পনের মাত্রা ছিল ৬.৫। 

কেন্দ্র ছিল তাসিকমালায়ার ৫২ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মাটির ৯২ কিলোমিটার নীচে। বাড়ি ভেঙে সিয়ামিসে ৬২ বছরের বৃদ্ধ ও পেকালংগন শহরে ৮০ বছরের মহিলাসহ ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত ৭ জন। রাজধানী জাকার্তা সহ সারা দ্বীপে অনুভূত হয়েছে কম্পন। 

নুগ্রোহো জানিয়েছেন, জাভায় একশোরও বেশি বাড়ি ভেঙেছে। অনেক হাসপাতালেরও ক্ষতি হয়েছে। বানুয়ামার এক হাসপাতালে ছাদ ধসে পড়েছে, দেওয়ালে চিড় ধরেছে। প্রায় ৭০ জন রোগীকে সঙ্গে সঙ্গে অস্থায়ী তাঁবুতে সরাতে হয়েছে। তাসিকমালায়া, সিয়ামিস, পেকালংগন, বানুয়ামা ছাড়াও পাঙ্গানদারান, বানজর, গারুত, সিলাকাপ, কেবুমেন, ব্রেবেস ও বানজারানেগারা অঞ্চলগুলি ক্ষতির কবলে পড়েছে।

সূত্র জানিয়েছে, শুক্রবার রাতে কয়েক মিনিটের ব্যবধানে তিনটি ভূমিকম্প অনুভূত হয়। শক্তিশালী দ্বিতীয় কম্পনটির পরই পশ্চিম জাভা, মধ্য জাভা ও যোগকার্তায় সুনামি সতর্কতা জারি হয়। হাজার বাসিন্দাকে উপকূল থেকে সরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়। অবশ্য শনিবার সকালেই এই সতর্কতা তুলে নেওয়া হয়। শনিবার ভোরে আরও এক বার দুলে ওঠে মাটি। যদিও সেই কম্পনের সুনামি-শক্তি ছিল না।

উল্লেখ্য, ২০০৪-এর ডিসেম্বরে এই দেশেই ৯.১ রিখটার স্কেলের ভূমিকম্প হয়েছিল। তার জেরেই এসেছিল সুনামি। দু’লাখের কাছাকাছি মানুষ প্রাণ হারিয়েছিলেন। ভারত থেকে সুদূর সোমালিয়া পর্যন্ত উপকূল এলাকা ভেসে গিয়েছিল।


আরপি
 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71