সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮
সোমবার, ৩রা পৌষ ১৪২৫
 
 
চিকিৎসার অভাবে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে রাজু
প্রকাশ: ০২:৩৬ pm ২৯-১০-২০১৭ হালনাগাদ: ০২:৩৬ pm ২৯-১০-২০১৭
 
নীলফামারী প্রতিনিধি:
 
 
 
 


নীলফামারীর ডিমলায় প্রতিভাবান এক ক্ষুদে ফুটবলার এখন চিকিৎসার (টাকার) অভাবে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। প্রতিদিন যেন তার শরীরের মাংসগুলো খুলে পড়ছে। মৃত্যু যেন তাকে তারা করে বেড়াচ্ছে।

সে জেলার ডিমলা উপজেলা সদরের বাবুরহাট পোষ্ট অফিস মোড় এলাকার সফিয়ার রহমান ভোলার ছেলে। তার তিন ছেলে ও এক মেয়ের মধ্যে দ্বিতীয় ছেলে প্রতিভাবান ফুটবলার রাজু ইসলাম বুলেট (১২) এখন মৃত্যু পথযাত্রী।

সফিয়ার রহমান ভোলা উপজেলার বাবুরহাট বাজারে দিন মজুর ও মাঝে মাঝে কুলির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। নুন আন্তে পোন্তা ফুরায় এমন এক অবস্থায় ছেলের চিকিৎসা তো দুরের কথা পরিবার পরিজনের খাবার যোগার করা তার পক্ষে দুঃসাধ্য। ডাক্তারের প্রেসক্রিপসন শুধুই দেখে আর চোখের পানী পেলে। অসুস্থ্য রাজুর চিকিৎসার জন্য ইতিমধ্যে তার দরিদ্র পিতা ৩ লক্ষাধিক টাকা খরচ করেছে।

পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, রাজু ইসলাম বুলেট ডিমলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ট শ্রেণীর ছাত্র এবং একজন প্রতিভাবান ক্ষুদে ফুটবলার। রাজু গত ৫ মাস আগে মাঠে ফুটবল খেলা শেষে করে পুকুরে লাফ দিতে গোসল করার সময় ঘাড়ে আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে শিরা (ভেন) ছিড়ে যায়। তার ঘাড়ের শিরা ছিরে গেলে তাৎক্ষনিকভাবে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

কিছু দিন পর ঘারের অপারেশন করার পরে অনেকটাই সুস্থ হয়ে ওঠেন। কে জানে এই চিকিৎসায় কাল হয়ে দাড়াবে রাজুর জীবনে। মেডিসিনের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার ফলে রাজুর শরীরে পচন শুরু হয়।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডাক্তার একেএম কামরুজ্জামান বলেছেন, তাকে বাঁচাতে অনেক টাকার প্রয়োজন। এমনকি বিদেশে নেওয়ারও পরামর্শ দেন ওই চিকিৎসক। রাজু এখন উন্নত চিকিৎসার অভাবে নিজের বাড়িতে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান বলেন, রাজু আমার বিদ্যালয়ের নিয়মিত একজন ছাত্র। সে লেখাপড়ায় ও ফুটবল খেলায় তুখোর। তার সুস্থতার জন্য আমরাও দেশবাসির কাছে সহানুভতি কামনা করছি।

রাজুর বাবা সফিয়ার রহমান বলেন, যেখানে ছেলে মেয়ে (সংসার) নিয়ে চলা খুবই দায়, সেখানে ছেলের চিকিৎসা কিভাবে সম্ভব, যে খেলায় ঘরে নিয়ে আসতো ট্রফি, সেই খেলায় নিয়ে আসলো আমার ছেলে রাজুর জীবন বাঁচার আকুতি।

তিনি আরও বলেন, চিকিৎসকগন উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশের বাইরে নেয়ার জন্য বলেছেন। রাজুকে বাঁচাতে সরকারী সহায়তার পাশাপাশি সকলের আর্থিক সহায়তা কামনা করেছে তার পরিবার।

বিঃদ্রঃ- সাহায্য পাঠানোর জন্য সরাসরি যোগাযোগ করতে রাজুর পিতা সফিয়ার রহমানের মোবাইল ফোন- ০১৭৪০৪৮৭৯২৫ ও (বিকাশ পার্সোনাল)।

এম/আরডি/


 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71