সোমবার, ১৬ জানুয়ারি ২০১৭
সোমবার, ৩রা মাঘ ১৪২৩
সর্বশেষ
 
 
সৈয়দপুরের নারী শিক্ষার বাতিঘর তুলশীরাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়
প্রকাশ: ০৪:২৩ pm ১০-০১-২০১৭ হালনাগাদ: ০৪:২৩ pm ১০-০১-২০১৭
 
 
 


নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর উপজেলার প্রাণকেন্দ্র চাঁদনগরে অবস্থিত তুলশীরাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। নারী শিক্ষা প্রসারের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠিত নারীদের এটিই প্রথম স্কুল।

এই প্রতিষ্ঠানে ভৌত অবকাঠামো সুবিধা, শিক্ষকদের আবাসন ও ছাত্রীদের থাকার হোস্টেল, প্রশস্ত খেলার মাঠ, আধুনিক যন্ত্রপাতি সম্বলিত গবেষণাগারসহ প্রতিবছর জেএসসি ও এসএসসিতে ঈর্ষণীয় ফলাফল করছে।

ফলে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী দীর্ঘদিনের দাবির পর চলতি বছর সরকারিকরণের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। সৈয়দপুর শহরের চাঁদনগরে তুলশীরাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়টি ১৯১৪ সালে স্থাপন করা হয়।

মুক্তিযুদ্ধে শহীদ তুলশীরাম আগরওয়ালা এটি প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি নয় বিঘা জমিসহ অর্থ দান করেন। প্রথমে বর্তমান স্কুলটির সামনে একটি একতলা ভবনে প্রাথমিকের কার্যক্রম শুরু হয়।

বর্তমানে সেটি এষনও কালের সাক্ষী হিসেবে টিকে রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি শুরু থেকেই নারী শিক্ষার ক্ষেত্রে অনবদ্য অবদান রেখে চলেছে। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটিতে পাঁচ শতাধিক ছাত্রী লেখাপড়া করছে।

এ বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করে নীলুফার আহমেদ নামে এক ছাত্রী বর্তমানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মহাপরিচালক, প্রশাসন-২ তে কর্মরত রয়েছেন।

সম্প্রতি তিনি স্কুলে এসে স্মৃতিচারণ করে বলেন, যে সময় কোনো ছাত্রীর পায়ে স্যান্ডেল ছিল না, তিনি একমাত্র স্যান্ডেল পড়ে স্কুলে আসতেন, লজ্জায় সে স্যান্ডেল স্কুলের কোনায় লুকিয়ে রাখতেন। ক্লাস ছুটির পর তা পরে বাসায় ফিরতেন।

সাবেক ছাত্রী লাইজুমান নাহার লাবনী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশ করে বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ায় পিএইচডি করছেন। আরেক সাবেক ছাত্রী ডা. লায়লা আরজু শেখ চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন। এছাড়াও এ প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়া করে অনেক ছাত্রী খ্যাতি ও প্রতিষ্ঠার শীর্ষে রয়েছেন।

প্রধান শিক্ষক আমিনুর রহমান জানান, শতবর্ষের পুরনো স্কুল ভবন সংস্কার জরুরি হয়ে পড়েছে। সাম্প্রতিক ভূমিকম্পে নতুন ভবনে ফাটল দেখা দেওয়ায় ছাত্রীরা আতঙ্কে ক্লাস করছে। স্কুলের সভাপতি রেজাউল করিম চৌধুরী স্কুলের সার্বিক উন্নয়নে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

 

এইবেলাডটকম/মোমেন/গোপাল

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

News Room: news@eibela.com, info.eibela@gmail.com, Editor: editor@eibela.com

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

Copyright © 2017 Eibela.Com
Developed by: coder71