eibela24.com
রবিবার, ০৫, ডিসেম্বর, ২০২১
 

 
চলে গেলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়
আপডেট: ১০:৩৯ pm ১৫-১১-২০২০
 
 


না ফেরার দেশে চলে গেলেন কিংবদন্তি অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

কলকাতার বেলভিউ নার্সিং হোমে রবিবার (১৫ নভেম্বর) দুপুর ১২টা ১৫ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাষ ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৮৫ বছর। তার মৃত্যুর বিষয়টি ভারতীয় গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন চিকিৎসকরা।

গত ৬ অক্টোবর করোনা আক্রান্ত হয়ে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় বেলভিউ নার্সিং হোমে ভর্তি হয়েছিলেন। প্রায় ৪১ দিন এখানেই ভর্তি ছিলেন তিনি। করোনা নিয়ে ভর্তি হলেও তিনি পরে করোনা নেগেটিভ হয়েছিলেন। পরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। তার প্রস্টেট ক্যানসার নতুন করে ছড়িয়ে পড়ে ফুসফুস এবং মস্তিষ্কে। তার মূত্রথলিতেও সংক্রমণ হয়েছিলো।

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ১৯৩৫ সালের ১৯ জানুয়ারি পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগরে জন্মগ্রহণ করেন।  বাবা মোহিত কুমার চট্টোপাধ্যায় কলকাতা হাইকোর্টের উকিল ছিলেন। তবে নাটকের চর্চা নিয়মিত ছিল পরিবারে,বাবা নাটকের দলে অভিনয় করতেন। ছোট থেকেই সেই পরিবেশে বড় হওয়া তাঁর। তখন থেকেই অভিনয়ের প্রেমে পড়ে যান সৌমিত্র। কলকাতার সিটি কলেজ থেকে প্রথমে আইএসসি এবং পরে বিএ অনার্স(বাংলা) পাশ করার পর পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কলেজ অফ আর্টস-এ দু-বছর পড়াশোনা করেছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। অভিনেতার রুপোলি সফর শুরু হয়, ১৯৫৯ সালে। ছবির নাম অপুর সংসার, যা পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন বিশ্ববরেণ্য চলচ্চিত্র পরিচালক সত্যজিৎ রায়। সেই পথচলা শুরু এই জুটির। সত্যজিৎ পরিচালিত ৩৪টি ছবির ১৪টি ছবিতে অভিনয় করেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, যা বাংলা চলচ্চিত্রের পরম ও বিরল প্রাপ্তি।

এছাড়া তিনি অশনী সংকেত, ঘরে বাইরে, চারুলতা, শাখা প্রশাখা, সাত পাকে বাঁধাসহ অসংখ্য সিনেমায় অভিনয় করেছেন।

 সিনেমা ছাড়াও নাটক ও যাত্রায় অভিনয় করেছেন তিনি। অভিনয় ছাড়াও লেখালেখি ও আবৃত্তি করেন গুণী এই শিল্পী।

নি এম/