eibela24.com
বুধবার, ০৮, ডিসেম্বর, ২০২১
 

 
মোংলায় চকলেটের প্রলোভনে ৭ বছরের শিশু ধর্ষণ
আপডেট: ০৪:৫৯ pm ০৪-১০-২০২০
 
 


মোংলায় ৭ বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। শিশুটিকে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ আটক করেছে ওই ধর্ষককে। ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ ও ধর্ষণের শিকার শিশুর স্বজনেরা জানান, শিশুটিকে বাবা ফেলে রেখে চলে যাওয়ায় এবং মায়ের অন্যত্র বিয়ে হওয়ায় সে থাকতো মোংলা পৌর শহরতলীর নারকেলতলা আবাসন প্রকল্পে মামা মিলন শেখের (৩৫) কাছে। শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে শিশুটিকে চকলেট দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে মিলন শেখের পাশের বাসিন্দা আব্দুল মান্নান (৫০) ডেকে নেয়। পরে ঘরে নিয়ে ওই শিশুকে ধর্ষণ করে মান্নান। এ সময় শিশুটির চিৎকারে তার মামী জরিনা বেগম ও প্রতিবেশী সালমা বেগম ওই ঘর থেকে তাকে উদ্ধার করে। উদ্ধার করে থানায় আনার পর তার চিকিৎসার জন্য সন্ধ্যায় স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তবে স্থানীয় হাসপাতালে এ ধরনের রোগীর তেমন কোন চিকিৎসার ব্যবস্থা না থাকায় শিশুটিকে খুলনা কিংবা বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নেয়ার জন্য স্বজনদের পরামর্শ দিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বর্তমানে শিশুটির শারিরীক অবস্থা খুবই খারাপ। 

এ ঘটনায় মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটার পর ধর্ষক মান্নানকে আটক করা হয়েছে। এবং এ ঘটনায় থানায় ধর্ষণ মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, এটি খুবই জঘন্য ঘটনা। এ ধরনের ঘৃণ্য ঘটনা যাতে না ঘটে সেজন্য তিনি সমাজের সকল স্তরের মানুষকে সচেতন ও সজাগ দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানান।

নি এম/