eibela24.com
বৃহস্পতিবার, ২০, জানুয়ারি, ২০২২
 

 
টাঙ্গাইলে ধর্ম নিয়ে কলেজছাত্রের কটূক্তি, প্রতিবাদে নারকীয় হামলা ও ভাংচুর
আপডেট: ১১:০২ pm ০৯-০৯-২০২০
 
 


টাঙ্গাইলে ভূঞাপুরে আল্লাহ, নবী ও ইসলাম ধর্মকে নিয়ে ফেসবুক গ্রুপ মেসেঞ্জারে কটূক্তি করায় শ্রাবণ হালদার নামের এক কলেজ শিক্ষার্থীর বাড়িতে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। 

সোমবার (৩১ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উত্তেজিত জনতা এ হামলা চালায়। 

শ্রাবণ হালদার উপজেলার গোবিন্দাসী গ্রামের শ্যামল হালদারের ছেলে ও ঢাকার বীরশ্রেষ্ঠ নুর মোহাম্মদ রাইফেলস স্কুল অ্যান্ড কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে।

স্থানীয়রা জানান, কলেজছাত্র শ্রাবণ হালদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ সে একটা মেসেঞ্জার চ্যাট গ্রুপে ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটুক্তি করে। এলাকায় এ খবর ছড়িয়ে পড়ে, ঘটনাটা ভাইরাল হয়, মিছিল মিটিং হয়, পরবর্তীতে বিক্ষোভ  মিছিল সহকারে তার বাড়িতে গিয়ে নারকীয় হামলা ও ভাংচুর চালানো হয়। পরে পুলিশ এসে তাকে দ্রুত গ্রেপ্তারের আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। বিক্ষোভকারীরা আগামীকাল সকাল ১০টার মধ্যে শ্রাবণকে গ্রেপ্তারের আল্টিমেটাম দেয়। 

শুধু ভাংচুর হামলা করেই ক্ষান্ত হয়নি ধর্মীয় অবমাননার বিচার প্রত্যাশীরা! ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ অনুযায়ী জানা যাচ্ছে, ঘরে থাকা নগদ টাকা এবং স্বর্ণালংকারও লুটপাট করা হয়েছে! ঘটনার সময় পুলিশও উপস্থিত ছিল তবে তান্ডব চলাকালীন  তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন নাই। সেইদিন অর্থাৎ ৩১ শে আগষ্ট রাতেই শ্রাবণ হালদারকে ধর্মীয় অবমাননার অভিযোগে পুলিশ আটক করে। বাংলাদেশের মিডিয়া এই ঘটনায় দায়সারা গোছের কিছু নিউজ করে যেখানে শুধুমাত্র শ্রাবণ হালদারের ধর্মীয় অবমাননার অভিযোগ আর উত্তেজিত মুসলমানদের বিক্ষোভ মিছিলের অংশটুকু ছাপানো হয়। বিশেষ করে শ্রাবণ হালদারের বাড়িতে ভয়াবহ হামলা আর লুটপাটের ঘটনাগুলো মোটেও প্রচারের আলোতে আনা হয়নি। 

নি এম/