eibela24.com
রবিবার, ২৮, ফেব্রুয়ারি, ২০২১
 

 
চিতলমারীতে চিকিৎসা সেবা বঞ্চিত ৮ হাজার মানুষ
আপডেট: ১১:১২ pm ১১-০৮-২০২০
 
 


বাগেরহাটের চিতলমারীর চরবানিয়ারী ইউনিয়ন পরিষদের  ৭, ৮ এবং ৯ নম্বর ওয়ার্ডে কমিউনিটি ক্লিনিক না থাকায় প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে স্থানীয়রা। দীর্ঘদিন আগে এখানে সিএইচসিপি পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হলেও কমিউনিটি ক্লিনিক না থাকায় তাকে অন্যত্র যোগাদান করেছে। ফলে প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত এখানকার প্রায় ৮ হাজার মানুষ। 

১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এসে জনসাধারণের দোরগোড়ায় চিকিৎসাসেবা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে প্রতিটি ইউনিয়নে তিনটি করে কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণের যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করে। ফলে তৃণমূল পর্যায়ে মানুষের কাছে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষে এ উদ্যোগ গ্রহণের দীর্ঘ প্রায় ২৪ বছর অতিক্রম হলেও চরবানিয়ারী ইউনিয়নের ঘনবসতি পূর্ণ এ তিনটি ওয়ার্ডে এখন পর্যন্ত কোনো কমিউনিটি ক্লিনিক গড়ে ওঠেনি। এ পরিস্থিতিতে নানা দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হলেও কারোনার কারনে শহরের বড় হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার সুযোগ পাচ্ছে না।

এ অঞ্চলে বাসিন্দা কুট্টি মিয়া, সনাতন বিশ্বাস, শ্রীপতি মন্ডল, খোকন হালদারসহ অনেকে হতাশা ব্যাক্ত করে জানায় অন্যান্য ইউনিয়নে কমিউনিটি ক্লিনিক অনেক আগের থেকে চালু করা হলেও আমরা সেই চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত রয়েছি।

চরবানিয়ারী ইউনিয়ন পরিষদের ৭, ৮ ও ৯  নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য শচীন শিকদার, গোরাচাঁদ ঘোষ এবং ননি বিশ্বাস জানান, ঘনবসতি পূর্ণ এ অঞ্চলে প্রায় ৮ হাজার মানুষ বসবাস করে। এখানে  কমিউনিটি ক্লিনিক না থাকায় শতশত মানুষ চিকিৎসা সেবা নিতে বাইরে যাচ্ছে। দ্রুত একটি ক্লিনিক স্থাপন করলে সাধারণ মানুষ চিকিৎসার সুযোগ পাবে। পাশাপাশি নারী ও শিশুরা এখান থেকে সুচিকিৎসা লাভ করতে পারবে।

চিতলমারী উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. মামুন হাসান জানান,  নির্ধারিত ভূমি দাতা না পাওয়ায় কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের কর্যক্রম থমকে আছে। বিষয়টি নিয়ে উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে।

নি এম/বিভাষ