eibela24.com
মঙ্গলবার, ২০, অক্টোবর, ২০২০
 

 
দেশে তৈরি হলো করোনার ভ্যাকসিন, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের উদ্যোগ 
আপডেট: ০৯:২৯ pm ০২-০৭-২০২০
 
 


বাংলাদেশের ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের আবিষ্কৃত করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের  ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের উদ্যোগ নেয়া হবে। 

বৃহস্পতিবার (২ জুলাই)রাজধানীর তেজগাঁওয়ে প্রতিষ্ঠানটির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

এই সংস্থাটি সাংবাদিক সম্মেলন করে দাবি করেছে, বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো কোভিড-১৯ রোগের টিকা ভ্যাকসিন আবিষ্কার করা গিয়েছে। ইতিমধ্যে পশুর শরীরে প্রাথমিকভাবে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে সফল্যও পাওয়া গিয়েছে। পশুর শরীরে আরেকটি রেগুলেটরি ট্রায়াল চালানো হবে। তার জন্য ৬-৮ সপ্তাহ সময় লাগবে। এরপরেই তারা আশা করছেন, মানবদেহে প্রয়োগের জন্য কাজ শুরু করা যাবে।

প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে বলা হয়, বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যে বাংলাদেশ সরকারকে জানানো হয়েছে। সরকারের দেওয়া গাইডলাইন অনুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের চেয়ারম্যান মো. হারুনুর রশিদ। তিনি বলেন,  'আমাদের কোম্পানির আবিষ্কৃত করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা পরীক্ষার জন্য আমরা সরকারের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করছি।'

করোনা মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ার কিছুদিন পর থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এর ভ্যাকসিন আবিষ্কারে উঠেপড়ে লাগে। বিশ্বের প্রায় ১৪০ টি দেশে করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কারের জন্য গবেষণা চলছে। এরইমধ্যে এখন পযর্ন্ত  অনেকগুলো ভ্যাকসিনকে পরীক্ষামূলক ভাবে মানবদেহে প্রয়োগও করা হয়েছে। তবে এদের মধ্যে কোনোটিই এখনও বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহারের অনুমতি পায়নি।

করোনার উৎসস্থল চীনে মোট ৮টি ভ্যাকসিন মানব পরীক্ষার অনুমতি পেয়েছে। এছাড়া অক্সফোর্ড ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি ভ্যাকসিনটির তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা চলছে।

নি এম/