বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০
বুধবার, ১৫ই আশ্বিন ১৪২৭
সর্বশেষ
 
 
সমালোচনার মুখে পাকিস্তানি মন্ত্রী
প্রকাশ: ১০:৪৬ pm ১১-০৮-২০২০ হালনাগাদ: ১০:৪৬ pm ১১-০৮-২০২০
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


সৌদি আরবের বিরুদ্ধে মন্তব্য করে দেশের ভেতরে সমালোচনার জন্ম দিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ। কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানের আবেদনে রিয়াদ সাড়া না দেওয়ায় মন্তব্য করেছিলেন তিনি।

কুরেশী এমন সময় মন্তব্য করলেন, যখন পাকিস্তানের সঙ্গে তেল সরবরাহ চুক্তির মেয়াদ দুই মাস আগে শেষ হয়ে গেলেও চুক্তিটি নবায়ন করেনি বিশ্বের বৃহত্তম তেল উৎপাদন ও রপ্তানিকারক দেশ সৌদি আরব।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম দ্যা এক্সপ্রেস ট্রিবিউন বলছে, পাকিস্তান ও সৌদি আরবের মধ্যে বার্ষিক ৩.২ বিলিয়ন ডলারের তেল বাকিতে দেওয়ার চুক্তিটি দুই মাস আগে শেষ হয়ে গেছে। এই চুক্তি পুনরায় নবায়নের বিষয়ে সিদ্ধান্ত মুলতবি রেখেছে রিয়াদ।

অর্থনৈতিক সংকট থেকে বাঁচতে ২০১৮ সালে সৌদি আরব থেকে ৬.২ বিলিয়ন ডলার ঋণ নিয়েছিল পাকিস্তান।

সেই ঋণে শর্ত ছিল, ইসলামাবাদকে সৌদি আরব ৩ বিলিয়ন ডলারের নগদ সহায়তা এবং বছরে ৩.২ বিলিয়ন ডলারের তেল ঋণে সরবরাহ করবে। যা দুই বছরের জন্য নবায়নের বিধান ছিল। কিন্তু সেই চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও তা নবায়ন করেনি সৌদি আরব।

কিছু পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমের দাবি, সৌদি আরবের এই সিদ্ধান্তের পিছনে রয়েছে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশীর কাশ্মীর প্রসঙ্গে বিতর্কিত মন্তব্য।

এআরওয়াই নিউজ টেলিভিশনের টকশোতে পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ওআইসি যদি কাশ্মীর নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক না ডাকে তবে পাকিস্তান অপেক্ষা করবে না। সেক্ষেত্রে আমি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে নিপীড়িত কাশ্মীরিদের পাশে দাঁড়াতে এবং তাদের সমর্থন করার জন্য ইসলামী দেশগুলোর একটি বৈঠক আহ্বান করতে বলবো।’

তবে কুরেশী স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন যে, তিনি আবেগপ্রবণ হচ্ছেন না। পুরোপুরি বুঝে তিনি বক্তব্য দিয়েছেন।

পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এটা ঠিক, সৌদি আরবের সঙ্গে আমাদের সুসম্পর্ক থাকা সত্ত্বেও আমরা অবস্থান নিচ্ছি। আমরা কাশ্মীরিদের দুর্ভোগ নিয়ে আর চুপ করে থাকতে পারি না।’

২০১৯ সালের ৫ আগস্ট জম্মু কাশ্মীরকে দেওয়া বিশেষ মর্যাদার ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করে ভারত সরকার। এরপর থেকেই অন্যান্য ইসলামিক দেশের কাছে ভারতের বিরুদ্ধে সমর্থন আদায়ের চেষ্টা চালায় ইমরান সরকার। কিন্তু তাতে ফল পায়নি ইসলামাবাদ।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

 

E-mail: info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Ltd.

Request Mobile Site

Copyright © 2020 Eibela.Com
Developed by: coder71