শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০১৭
শুক্রবার, ১০ই চৈত্র ১৪২৩
সর্বশেষ
 
 
বরিশালে সেবা ডায়াগস্টিক সেন্টারে চিকিৎসকের অবহেলায় রোগীর মৃত্যু
প্রকাশ: ০৯:৫২ am ০৪-০৮-২০১৬ হালনাগাদ: ০৯:৫২ am ০৪-০৮-২০১৬
 
 
 


বরিশাল প্রতিনিধিঃ নগরীর সেবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের চিকিৎসক হারুন-অর রশিদের অবহেলায় বৃহস্পতিবার সকালে হেনারা বেগম (৫০) নামের এক নারীর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। হেনারা ঝালকাঠীর নলছিটি উপজেলার চরকয়া গ্রামের এনায়েত সিকদারের স্ত্রী। এরপূর্বে ডাঃ হারুনের অপচিকিৎসায় কমপক্ষে ১৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এ কারণে গত বছর ডাঃ হারুনকে র‌্যাব আটকও করেছিলো।

হেনারার বোনের ছেলে শহিদুল ইসলাম জানান, তার খালা হেনারা বেগমের নাকে পলি পাইলস্ থাকার কারনে গত বুধবার তাকে নলছিটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অবসরপ্রাপ্ত নাক-কান ও গলা বিভাগের চিকিৎসক হারুন-অর রশিদের প্রাইভেট চেম্বার নগরীর পুলিশ লাইনস্ রোডে এনে তাকে (হারুন) দেখানো হয়। ডাঃ হারুন-অর রশিদ রোগীর নাকে অপারেশনের জন্য নগরীর বান্দ রোডস্থ সেবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি করার পরামর্শ দেন।

তার পরামর্শ মোতাবেক বুধবার হেনারা বেগমকে সেবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে অপারেশন করার পর রোগীকে বেডে দেয়ার পর পরই সকাল সাড়ে দশটার দিকে হেলেনা বেগমের মৃত্যু হয়েছে। শহিদুল ইসলাম অভিযোগ করেন, চিকিৎসক হারুনের অবহেলার কারণেই তার খালা হেলেনা বেগমের মৃত্যু হয়েছে। তানা হলে পলি পাইলস্ অপারেশনে মৃত্যু হওয়ার কোন কারণ নেই। নিজেকে নির্দোশ দাবি করে অভিযুক্ত চিকিৎসক ডাঃ হারুন-অর রশিদ বলেন, আমার ভুলে রোগী মারা যায়নি। এনেসথিসিয়ার চিকিৎসকের মূল দায়িত্ব রোগীকে অচেতন করা এবং তার জ্ঞান ফিরিয়ে আনা। এ রোগীর মৃত্যুর জন্য এনেসথিসিয়ার চিকিৎসকের কোন ভুল থাকতে পারে।

উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে ডাঃ হারুন-অর রশিদের অপচিকিৎসায় কমপক্ষে ১৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এ কারণে গত বছর ডাঃ হারুনকে র‌্যাব সদস্যরা আটক করে তাদের কার্যালয়ে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে আর কোনদিন প্রাইভেট প্রাকটিস করবেন না মর্মে ডাঃ হারুন মুচলেকা দিয়ে র‌্যাবের হাত থেকে ছাড়া পায়। কিন্তু কিছুদিন যেতে না যেতেই ডাঃ হারুন পূর্ণরায় প্রাইভেট প্রাকটিস শুরু করার পর তার অবহেলায় রোগীর মৃত্যুর সংখ্যাও বৃদ্ধি পেতে থাকে।
 

এইবেলা ডটকম/কল্যান/ইআ

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

News Room: news@eibela.com, info.eibela@gmail.com, Editor: editor@eibela.com

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

Copyright © 2017 Eibela.Com
Developed by: coder71