শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭
শুক্রবার, ১০ই অগ্রহায়ণ ১৪২৪
 
 
পাঁচটি সরকারি কলেজ হবে পার্বত্য এলাকায় 
প্রকাশ: ০৩:৩৮ pm ২৩-১০-২০১৭ হালনাগাদ: ০৩:৩৮ pm ২৩-১০-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


রাঙ্গামাটি ও বান্দরবানের পাঁচ উপজেলায় নতুন পাঁচটি অত্যাধুনিক আবাসিক সরকারি কলেজ স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ সংক্রান্ত একটি প্রকল্প তৈরির জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরকে (মাউশি) নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মাউশির সহকারী পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ড. একেএম খলিলুর রহমান বলেন, বর্তমানে জমি অধিগ্রহণের কাজ চলছে। ডিসেম্বরের মধ্যে উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) তৈরি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। প্রতিটি কলেজে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ খোলা হবে। প্রতিটি বিভাগে অন্তত দেড়শ শিক্ষার্থী ভর্তির অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে। দুর্গম এলাকা হওয়ায় শিক্ষার্থীদের কলেজ ক্যাম্পাসে থাকার জন্য অন্তত পাঁচশ আসনের আবাসিক হোস্টেল নির্মাণ করা হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের চিঠিতে বলা হয়েছে, রাঙ্গামাটির বিলাইছড়ি, জুড়িছড়ি এবং বান্দরবানের আলীকদম, রুয়াংছড়ি, থানছি উপজেলায় উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের কোনো কলেজ নেই। ‘পাঁচ উপজেলায় সরকারি কলেজ স্থাপন’ শীর্ষক প্রকল্পের জন্য সংশ্লিষ্ট এলাকায় সম্ভাব্য স্থান নির্বাচন ও নির্বাচিত স্থানে অন্তত পাঁচ একর জমি লোকেশন ম্যাপসহ অধিগ্রহণ, অধিগ্রহণ বাবদ ব্যয় প্রাক্কলন প্রেরণের জন্য নির্দেশ দেয়া হলো।

বান্দরবান জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক বলেন, আলীকদম, রুয়াংছড়ি ও থানছি উপজেলা অত্যন্ত দুর্গম এলাকা। আলীকদমে বাঙালি ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সংখ্যা প্রায় সমান। বাকি দুই উপজেলায় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর বসবাস বেশি। এ সব উপজেলায় স্কুল থাকলেও কলেজ না থাকায় শিক্ষার্থীরা উচ্চশিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সরকারের এই উদ্যোগের ফলে পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর উচ্চ শিক্ষার পথ সুগম হবে।

রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান বলেন, জেলার সবচেয়ে দুর্গম উপজেলা বিলাইছড়ি ও জুড়িছড়ি। দুই উপজেলায় সরকারি-বেসরকারি কোনো কলেজ না থাকায় এলাকার শিক্ষার্থীরা বিশেষ করে ছাত্রীরা উচ্চ শিক্ষা থেকে পিছিয়ে পড়ছেন। আমি নিজে সেখানে পরিদর্শনে গেলে এলাকার মানুষ কলেজ প্রতিষ্ঠার দাবি জানিয়েছেন। তাদের এ দাবি বাস্তব। সরকারের এ উদ্যোগের ফলে এলাকার মানুষের দীর্ঘ দিনের দাবি পূরণ হবে। পাহাড়ের দুর্গম এলাকার শিক্ষার্থীরা উচ্চ শিক্ষার সুযোগ পাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। যত দ্রুত সম্ভব জমি অধিগ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

সরকারের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জীব দ্রং বলেন, এ সব উপজেলায় অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী রয়েছে। কলেজ না থাকায় দুর্গম এলাকার অনেকের পক্ষে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে পড়ালেখা করার সুযোগ হয় না। সরকার এ সব এলাকায় সরকারি কলেজ করলে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা খরচও কম লাগবে। পিছিয়ে পড়া পার্বত্য অঞ্চলের নতুন প্রজন্ম আধুনিক ও যুগোপযোগী শিক্ষায় শিক্ষিত হবে। 


আরপি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
Loading...
 
 
 
Loading...
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক: সুকৃতি কুমার মন্ডল

Editor: ‍Sukriti Kumar Mondal

সম্পাদকের সাথে যোগাযোগ করুন # sukritieibela@gmail.com

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

   বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ:

 E-mail: sukritieibela@gmail.com

  মোবাইল: +8801711 98 15 52 

            +8801517-29 00 01

 

 

Copyright © 2017 Eibela.Com
Developed by: coder71