মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২
মঙ্গলবার, ১৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৯
সর্বশেষ
 
 
পরীক্ষার্থীদের জন্য ‘সাপোর্ট’ নামে বিশেষ সেবা পুলিশের
প্রকাশ: ০৮:২৮ pm ১৫-০৯-২০২২ হালনাগাদ: ০৮:২৮ pm ১৫-০৯-২০২২
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


সারাদেশে বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) শুরু হয়েছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। প্রথম দিনে ভুল করে অন্য পরীক্ষাকেন্দ্রে চলে আসে রাজধনীর উদয়ন স্কুলের শিক্ষার্থী মীম। তার কেন্দ্র উত্তরা গার্লস স্কুল হলেও সে চলে আসে উত্তরা বয়েজ স্কুলে। ঘটনাটি জানার পর তাকে তোলা হয় উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীনের গাড়িতে। পৌঁছে দেওয়া হয় তার নির্দিষ্ট কেন্দ্রে।

উত্তরা পশ্চিম থানার ডিউটি অফিসার মো. হানিফ উদ্দিন মন্ডল  জানান, উত্তরা হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজের সামনে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য ‘সাপোর্ট’ নামে বিশেষ সেবা বুথ খোলা হয়েছে। ডিএমপির উত্তরা পশ্চিম থানার উদ্যোগে এই সেবা চালু করা হয়। এদিন ভুল করে বাসায় প্রবেশপত্র ফেলে আসে কয়েকজন শিক্ষার্থী। তাদের বাসা থেকে প্রবেশপত্র এনে দেয় পুলিশ। যানজটে আটকা শিক্ষার্থীদেরও বিশেষ মোটরসাইকেলে কেন্দ্রেও দিয়ে আসে পুলিশ।

তিনি আরও বলেন, মীম নামের এক শিক্ষার্থী ভুল করে অন্য পরীক্ষাকেন্দ্রে চলে আসে। পরে ওসির স্যারের গাড়িতে করে তাকে সময়মতো পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন  বলেন, ‘এসএসসি পরীক্ষা উপলক্ষে উত্তরা পশ্চিম থানাধীন উত্তরা হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজে আসা পরীক্ষার্থীরা যাতে নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে পৌঁছাতে পারে সে লক্ষ্যে সকাল থেকে থানা এলাকায় দায়িত্ব পালনরত মোবাইল ও হোন্ডা মোবাইল যানজট নিরসনে নিরলসভাবে দায়িত্ব পালন করে। পাশাপাশি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ও পুলিশ পরিদর্শকের (তদন্ত) নেতৃত্বে পরীক্ষার্থীদের সহায়তার লক্ষ্যে একটি বিশেষ টিম ও পরীক্ষা কেন্দ্রে একটি বুথ স্থাপন করা হয়, যা ‘সাপোর্ট’ নামকরণ করা হয়। সাপোর্ট বুথ কেন্দ্রে আসা পরীক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সামগ্রী, মাস্ক, সেনিটাইজার, বিশুদ্ধ খাবার পানি ও কলম থানা পুলিশের পক্ষ হতে বিনামূল্যে সরবরাহ করা হয়।

তিনি আরও বলেন, ‘কোনো পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে বা কেন্দ্র ভুল করলে তাকে দ্রুত সাপোর্ট টিমের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়া হয়। এ সাপোর্ট টিমে তিনটি পুলিশ পিকআপ এবং ১০টি মটরসাইকেলযোগে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ প্রায় ১৫ জন পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হয়’।

উল্লেখ্য, এর আগেও ওসি মহসীন যেখানেই দায়িত্ব পালন করেছেন সেখানেই শিক্ষার্থীদের জন্য নানা উদ্যোগ নিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘সিনিয়রদের সহযোগিতা ও নির্দেশনার কারণে এটি সম্ভব হয়েছে।’

কেএম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

 

E-mail: info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Ltd.

Request Mobile Site

Copyright © 2022 Eibela.Com
Developed by: coder71