রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৭
রবিবার, ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৪
 
 
নাটোরে পুরোহিতকে হত্যার হুমকি
প্রকাশ: ০৯:৪৪ am ১৯-১০-২০১৭ হালনাগাদ: ০৯:৪৪ am ১৯-১০-২০১৭
 
নাটোর প্রতিনিধি
 
 
 
 


নাটোরের বড়াইগ্রামের বনপাড়া খ্রিষ্টান মিশনের সহকারী পাল-পুরোহিত ফাদার নবীন পিউজ কস্তাকে প্রকাশ্যে হত্যার হুমকীর ঘটনায় পুলিশ খুঁজছে অভিযুক্ত আসামিদেরকে। কিন্তু অপরদিকে এই ঘটনার ইন্ধনদাতা হিসেবে নাম উঠে আসা বনপাড়া প্যারিশ কাউন্সিলের সহ-সভাপতি বেনেডিক্ট গমেজ আসামিদের না ধরার জন্য উল্টো পুলিশকে হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার দুপুরে বনপাড়া খ্রিষ্টান মিশনের ফাদার হাউজে বনপাড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মো. রফিকুল ইসলাম উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, রাত একটার দিকে প্রধান অভিযুক্ত আসামি বনপাড়া এলাকার অখিল রায়ের ছেলে পিযুজ রায়কে আটক করতে তাদের বাড়িতে গেলে বেনেডিক্ট গমেজ তাকে মোবাইল ফোনে কল দেয় এবং আসামিকে আটক না করার জন্য বলেন। এতে আপত্তি তুললে বেনেডিক্ট গমেজ জানান, যদি আসামিদের আটক করা হয় তাহলে চারিদিকে তুষের আগুন জ্বালিয়ে দিবো। পুলিশ এই হুমকি উপক্ষো করে তল্লাশি চালালেও প্রধান আসিমি পিযুজ রায়কে ওই বাড়িতে খুঁজে পাননি। পুলিশ পরিদর্শক আরও জানান, এই ঘটনার পর সকল অভিযুক্ত আসামিরা গা ঢাকা দিয়েছে। 

কাউন্সিলের সহ-সভাপতি বেনেডিক্ট গমেজের সাথে এ ব্যাপারে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। উল্লেখ্য, আসন্ন বনপাড়া খ্রিষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের পরিচালনা পরিষদের নির্বাচনে একটি মনোনয়ন পত্র বাতিল হওয়াকে কেন্দ্র করে পিযুজ রায় সহ ১৫/১৬ জন সন্ত্রাসী মদ্যপ অবস্থায় ইউনিয়ন অফিস ও খ্রিষ্টান মিশন হাউজে হামলা চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্বে থাকা সহকারী পালপুরোহিত ফাদার নবীন পিউজ কস্তা সহ কয়েকজনকে হত্যার হুমকী দেয়। তারা ফাদার নবীনকে হত্যার উদ্দেশ্যে ফাদার হাউজ ও স্টুডেন্ট বোর্ডিং এ তল্লাশি চালায়। পরে না পেয়ে ফাদার নবীনকে খুঁজে পাওয়া মাত্র হত্যা করে চামড়া তুলে তা মিশন গেটে ঝুলিয়ে রাখবেন বলে প্রকাশ্যে হুমকী দিয়ে চলে যান। 


এ ঘটনার পর সোমবার রাতে বড়াইগ্রাম থানায় বনপাড়া এলাকার অখিল রায়ের ছেলে পিযুজ রায় (২৯), হান্ডো ক্রুশের ছেলে রতন ক্রুশ (২৬), আলবেদন বিশাসের ছেলে বৈশাখ বিশ্বাস (২১),  মৃত ইউজিন কস্তার ছেলে বাবু কস্তা  (৩২) সহ অজ্ঞাত ১৫/১৬ জনের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়।

প্রচ

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
Loading...
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Loading...
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক: সুকৃতি কুমার মন্ডল

Editor: ‍Sukriti Kumar Mondal

সম্পাদকের সাথে যোগাযোগ করুন # sukritieibela@gmail.com

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

   বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ:

 E-mail: sukritieibela@gmail.com

  মোবাইল: +8801711 98 15 52 

            +8801517-29 00 01

 

 

Copyright © 2017 Eibela.Com
Developed by: coder71