মঙ্গলবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭
মঙ্গলবার, ১৬ই ফাল্গুন ১৪২৩
সর্বশেষ
 
 
টেংরাটিলার ভয়ানক ট্রাজেডির যূগপূর্তি আজ
প্রকাশ: ০৩:০৩ am ০৭-০১-২০১৭ হালনাগাদ: ০৩:০৩ am ০৭-০১-২০১৭
 
 
 


সিলেট :: ৭জানুয়ারি ছিল বৃহত্তর টেংরাটিলাবাসির আতংক ও বিভীষিকাময় একটি দিন। ২০০৫সালের ৭জানুয়ারি ও ২৪জুন দু’দফা বিস্ফোরণে টেংরাটিলা গ্যাসফিল্ডের প্রোডাকশন কূপের রিগ ভেঙ্গে প্রচন্ড শব্দ ও ভয়াবহ কম্পনসহ ৩শ’থেকে সাড়ে ৩শ’ফুট উচ্চতায় আগুনের লেলিহান শিখা ওঠা-নামা করতে থাকে।

পর পর দু’দফা বিস্ফোরণে গ্যাসফিল্ডের মাটির ওপরে ৩বিসিক গ্যাস পুড়ে যাওয়া এবং ৫.৮৯ থেকে কমপক্ষে ৫২বিসিক গ্যাসের রিজার্ভ ধ্বংস হওয়াসহ টেংরাটিলা, আজবপুর, গিরীশনগর, খৈয়াজুরি ও শান্তিপুরসহ এলাকার বিভিন্ন গ্রামের মানুষের ঘরবাড়ি এবং পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি সাধিত হয়। বিস্ফোরণের পর স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের সামান্য ক্ষতিপূরণ আদায় করে কৌশলগতভাবে কানাডিয়ান কোম্পানী নাইকো তাদের সরঞ্জামাদি নিয়ে গ্যাসক্ষেত্র থেকে চলে যায়।

দূর্ঘটনার আজ ৭জানুয়ারি ২০১৭ইং এক যূগ পূর্তি হচ্ছে। সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার টেংরাটিলায় পরিত্যাক্ত ‘ছাতক গ্যাসফিল্ড পশ্চিম’ গ্যাসক্ষেত্রের আশপাশ এলাকা, বাড়িঘর, পুকুরও টিউবওয়েলসহ বিভিন্ন খাল-বিল দিয়ে বুদবুদ আকারে গ্যাস বের হচ্ছে। এখনও টিউবওয়েল দিয়ে উদগীরিত গ্যাসে দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে। টেংরাটিলা গ্রামের বিভিন্ন বাড়িতে ও গ্যাসফিল্ডের পাশের গ্রামের বিভিন্ন পুকুর, জমি, রাস্তা ও বাড়ি-ঘরের ফাটল দিয়েও বুদবুদ আকারে গ্যাস বেরোচ্ছে। এখনো আতঙ্কিত টেংরাটিলা গ্রামের মানুষ।

এলাকার সকল বাড়িরই বিভিন্ন ফাটল, ফসলি জমি ও রাস্তা দিয়ে গ্যাস উদগীরণের কারণে বিভিন্ন প্রজাতির গাছের পাতা ঝরে শুকিয়ে মরে যাচ্ছে। পুকুর থেকে উদগীরিত গ্যাস দিয়ে নিজস্ব আবিষ্কৃত প্রযুক্তি ব্যবহার করে রান্না-বান্না করা হচ্ছে। টেংরাটিলা গ্যাস ফিল্ড ট্রাজেডির একযূগ পূর্তি দিবসে টেংরাটিলা দাবি আদায় সংগ্রাম পরিষদ সিলেটের সভাপতি নুরুল আমিন, পরিষদ নেতা আলমগীর হোসেন, আবদুল আহাদ এলিছ, রফিকুল ইসলাম, আমির আলী, রিপন হাওলাদার, সানি আলম সাগর, ওসমান আলী, নাসির উদ্দিন, নাদিম আমিন নাইম, আলী হোসেন, লিটন আহমদ, ইসমাইল হোসেন, ফারুক হাসান, ইকবাল হোসেন, নিশিকান্ত পাল, সুবর্ণা সিনহা, সাদিয়া আমিম, শান্তা আকতার, সামিয়া আকতার, কামাল মিয়া, আবদুল করিম বাবলু, মির্জা আলমগীর টেংরাটিলা গ্যাস ফিল্ড অভিমুখে বিক্ষোভ মিছিল, মতবিনিময় সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন। এসব কর্মসূচিতে গন্যমান্য ব্যক্তিদের মধ্যে শাহজাহান মাস্টার, মাস্টার ফরিদ উদ্দিন আহাম্মদ, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিম বীর প্রতীকসহ এলাকাবাসী উপস্থিত থেকে টেংরাটিলা গ্যাস ফিল্ড ট্রাজেডিতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ক্ষতি পূরন এবং পূনর্বাসনের দাবী জানাবেন বলে জানা গেছে।

 

এইবেলাডটকম/নীল

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Migration
 
আরও খবর

 
 
 

News Room: news@eibela.com, info.eibela@gmail.com, Editor: editor@eibela.com

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

Copyright © 2017 Eibela.Com
Developed by: coder71