শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭
শনিবার, ১১ই চৈত্র ১৪২৩
সর্বশেষ
 
 
জেনে রাখুন মোনালিসার কিছু চমকপ্রদ তথ্য
প্রকাশ: ০২:০০ am ১২-০১-২০১৭ হালনাগাদ: ০২:০০ am ১২-০১-২০১৭
 
 
 


মোনালিসা পৃথিবীর বিখ্যাত চিত্রকর্ম গুলোর অন্যতম। বিখ্যাত চিত্রকর লিওনার্দো দ্যা ভিঞ্চির সৃষ্টিকর্ম মোনালিসা। বিশ্ব সেরা এই শিল্পকর্মটি সকল শিল্পপ্রেমীদের জন্যই অনেক কৌতূহল উদ্দীপক।

এই চিত্রকর্মটি কয়েকবার চুরি হয়েছিলো। Dan Brown এর উপন্যাস দ্যা ভিঞ্চি কোড এর মূল বিষয় মোনালিসা। এই চিত্রকর্মটি নিয়ে শতবর্ষ যাবত বিতর্ক চলেছে। মোনালিসার হেঁয়ালিপূর্ণ অভিব্যক্তি এখনো অমীমাংসিত রহস্য। এই রহস্যময় চিত্রকর্মটির বিষয়ে আরো কিছু কৌতূহল উদ্দীপক বিষয় জেনে নেই আসুন।

১। মোনালিসা চিত্রকর্মটির নামের বানান ভুল। চিত্রকর্মটির আসল নাম ছিল Monna Lisa। ইতালিয়ান Madonna শব্দের সংক্ষিপ্ত রূপ হচ্ছে Monna, এর অর্থ হচ্ছে ‘আমার সহধর্মিণী’।

২। চিত্রকর্মের মহিলাটির পরিচয় সম্পর্কে এখনো রহস্য আছে। অনেকেই বিশ্বাস করেন যে, এটি লিওনার্দো দ্যা ভিঞ্চির নিজের মহিলা সংস্করণ। আবার অনেকেই বিশ্বাস করেন এই মহিলাটির নাম Lisa Gherardini, যার বয়স ছিল ২৪ বছর এবং তিনি দুই সন্তানের জননী ছিলেন।

৩। ফ্রান্সের সম্রাট নেপোলিয়ান তাঁর ঘরে মোনালিসার চিত্রকর্মটি লাগিয়ে ছিলেন, Lisa Gherardini এর বংশধর Teresa Guadagni নামের সুন্দরী ইতালিয়ান রমণীকে ভালোবাসতেন তিনি, মোনালিসার চিত্রকর্মটি দেখে তাঁর সেই প্রেমিকার কথা মনে হয়েছিলো বলে মোহাবিষ্ট হয়ে দীর্ঘক্ষণ এই ছবির সামনে কাটাতেন তিনি।

৪। চিত্রকর্মটির মহিলাটির কোন ভ্রু নেই। গুজব আছে যে, চিত্রকর্মটি সংরক্ষণের সময় ঘটনাক্রমে ভ্রু মুছে যায়। এছাড়াও অন্য আরেকটি তত্ত্ব হচ্ছে যে, ভিঞ্চি চিত্রকর্মটির আঁকা শেষ করেননি।

৫। শিল্পকর্মটিতে একটি খুঁত আছে। ১৯৫৬ সালে Ugo Ungaza নামের এক লোক ছবিটিতে একটি পাথর ছুঁড়ে মারে। এতে মোনালিসার বাম কনুই এ ছোট ক্ষত সৃষ্টি হয়।

৬। শিল্পকর্মটি প্যারিসের ল্যুভর মিউজিয়ামে আছে। ছবিটি একটি আলাদা কক্ষে রাখা হয়েছে যার জলবায়ু নিয়ন্ত্রিত করা আছে এবং ছবিটি বুলেট প্রুফ গ্লাস দিয়ে ঢাকা একটি খাপের মধ্যে রাখা আছে। এই কক্ষটি তৈরি করতে ৭ মিলিয়ন ডলার ব্যায় হয়েছে।

৭। গবেষণার মাধ্যমে জানা গেছে যে, বর্তমান সংস্করণটির পূর্বে ছবিটি তিনটি আলাদা স্তরে আঁকা হয়েছিলো। একটি সংস্করণে তাঁর হাত দুটো তাঁর সামনে রাখা একটি চেয়ার উপর দিয়ে জড়িয়ে আছে।

কিছু অসম্পূর্ণতা থাকা সত্ত্বেও রেনেসাঁ যুগের এই চিত্র কর্মটি বিশ্বের সেরা শিল্পকর্ম গুলোর একটি। ফ্রান্সের ইঞ্জিনিয়ার ও লুমিয়ার টেকনোলোজির প্রতিষ্ঠাতা Pascal Cotte মোনালিসা নিয়ে অনেক গবেষণা করেছেন।

তাঁর উদ্ভাবিত ক্যামেরা দিয়ে এই পেইন্টিংটি স্ক্যান করেন। তিনি বলেন, “যদি আপনি এই পরিবর্ধিত মোনালিসার সামনে থাকেন তাহলে বুঝতে পারবেন কেন মোনালিসা এত বিখ্যাত”। তিনি আরো বলেন, “এটা এমনই একটা জিনিষ যা আপনাকে নিজ চোখে দেখতে হবে”।

এইবেলাডটকম/এএস

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

News Room: news@eibela.com, info.eibela@gmail.com, Editor: editor@eibela.com

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

Copyright © 2017 Eibela.Com
Developed by: coder71