রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১
রবিবার, ২১শে অগ্রহায়ণ ১৪২৮
সর্বশেষ
 
 
গালওয়ানে ব্রিজ নির্মাণ কাজ শেষ করলো ভারতীয় সেনার ইঞ্জিনিয়ার টিম
প্রকাশ: ০৯:৪৭ am ২১-০৬-২০২০ হালনাগাদ: ০৯:৪৭ am ২১-০৬-২০২০
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


লাদাখের গালওয়ানে প্রকৃত নিয়্ন্ত্রণরেখা নিয়ে ভারত ও চীনের সেনাদের মধ্যকার চলমান চূড়ান্ত সামরিক উত্তেজনার মধ্যেই বৃহস্পতিবার গালওয়ান ব্রিজের নির্মাণ কাজ শেষ করলো ভারতীয় সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং টিম।

প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় যে কোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় ভারতীয় সেনার যে কোন পরিবহন যাতে সহজে পৌছুতে পারে সেজন্যই এই ৬৮ মিটার লম্বা সেতুর নির্মাণ।

বৃহস্পতিবার সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হবার পর প্রায় দুই ঘণ্টা সেতুর উপর যানবাহন চালিয়ে সেতুটি পরীক্ষা করে ভারতীয় সেনাবাহিনী। ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিভাগীয় কমান্ডার মেজর জেনারেল অভিজিৎ বাপাত সেতুর অগ্রগতি সম্পর্কে একটি নির্দিষ্ট ব্রিফিং পেয়েছিলেন।

তিনি সংঘর্ষের পর দিন ১৬ জুন সকালে চীনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার জন্য প্যাট্রোল পয়েন্টে ১৪-তে গিয়েছিলেন। এ রক্তপাতের পরে কয়েক দফা আলোচনা হয়েছে।

ওই উপত্যকার মালিকানা দাবি করে ১৯৫০ সাল থেকে সেখানে টহল অব্যাহত রেখেছে চীন। এরমধ্যেই গত সোমবার রাতে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনা নিহত ও অন্তত ৭৬ জন গুরুতর আহত হন।

নি এম/

লাদাখের গালওয়ানে প্রকৃত নিয়্ন্ত্রণরেখা নিয়ে ভারত ও চীনের সেনাদের মধ্যকার চলমান চূড়ান্ত সামরিক উত্তেজনার মধ্যেই বৃহস্পতিবার গালওয়ান ব্রিজের নির্মাণ কাজ শেষ করলো ভারতীয় সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং টিম।

প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় যে কোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় ভারতীয় সেনার যে কোন পরিবহন যাতে সহজে পৌছুতে পারে সেজন্যই এই ৬৮ মিটার লম্বা সেতুর নির্মাণ।

বৃহস্পতিবার সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হবার পর প্রায় দুই ঘণ্টা সেতুর উপর যানবাহন চালিয়ে সেতুটি পরীক্ষা করে ভারতীয় সেনাবাহিনী। ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিভাগীয় কমান্ডার মেজর জেনারেল অভিজিৎ বাপাত সেতুর অগ্রগতি সম্পর্কে একটি নির্দিষ্ট ব্রিফিং পেয়েছিলেন।

তিনি সংঘর্ষের পর দিন ১৬ জুন সকালে চীনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার জন্য প্যাট্রোল পয়েন্টে ১৪-তে গিয়েছিলেন। এ রক্তপাতের পরে কয়েক দফা আলোচনা হয়েছে।

ওই উপত্যকার মালিকানা দাবি করে ১৯৫০ সাল থেকে সেখানে টহল অব্যাহত রেখেছে চীন। এরমধ্যেই গত সোমবার রাতে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনা নিহত ও অন্তত ৭৬ জন গুরুতর আহত হন।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

 

E-mail: info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Ltd.

Request Mobile Site

Copyright © 2021 Eibela.Com
Developed by: coder71