বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০
বৃহঃস্পতিবার, ২২শে শ্রাবণ ১৪২৭
সর্বশেষ
 
 
খুলনায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হিন্দু যুবককে ছুরিকাঘাতে খুন!
প্রকাশ: ০১:৪৫ pm ১১-০৬-২০২০ হালনাগাদ: ০১:৪৫ pm ১১-০৬-২০২০
 
খুলনা প্রতিনিধি
 
 
 
 


আবারও ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বাড়িতে বর্বরোচিত হামলা ও একজনকে ছুরিকাঘাতে খুন। খুলনায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাজুয়ায় নিলোৎপল রপ্তান (২৮) নামে এক যুবক ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়েছে। 

ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার (৯ জুন) খুলনা জেলার দাকোপ উপজেলার বাজুয়া ইউনিয়নে।

নিহত নিলোৎপল রপ্তান বাজুয়া এসএন কলেজের লাইব্রেরিয়ান সুকুমার রপ্তান এর ছেলে। কলেজ ক্যাম্পাসের পাশে তারা নিজস্ব বাড়িতে বসবাস করতেন। ঘাতক মোঃ ইমন মিয়াকে সাথে সাথেই স্থানীয়রা আটক করে। ইমন মিয়া বাজুয়া এসএন কলেজেরই পাশ্ববর্তী মোঃ বাদল মিয়ার ছেলে। ঘটনার পর থেকে মোঃ বাদল মিয়া পলাতক রয়েছে।

সুকুমার রপ্তানের নিকটাত্মীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীদের নিকট থেকে জানা যায়, বেশ কিছুদিন ধরে মোঃ ইমন মিয়ার পরিবার কলেজ ক্যাম্পাসের ভিতর দিয়ে গরু আনা-নেওয়া করে আসছিল। বিষয়টি নিয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে একাধিকবার নিষেধ করা হয়। কিন্তু নিষেধ অমান্য করে তারা গরু-আনা-নেওয়া অব্যাহত রাখলে সর্বশেষ গত দুইদিন আগে লাইব্রেরিয়ান সুকুমার রপ্তান তাদেরকে গরু প্রবেশে নিষেধ করে। এর পর থেকে মোঃ ইমনের পরিবার সুকুমার রপ্তান ও তার পরিবারকে বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিতে থাকে। এক পর্যায়ে মঙ্গলবার সকালে সুকুমার রপ্তান এর প্রতিবাদ জানাতে মোঃ ইমনদের বাড়ির সামনে যায়। এতে তারা আরও ক্ষিপ্ত হয়।

এর কিছুক্ষণ পর মোঃ ইমন ও তার বাবা মোঃ বাদল মিয়া নীলোৎপলদের ঘরে যায়। এ সময় ঘরে একা ঘুমিয়ে ছিল নিলোৎপল। সেই সুযোগে মোঃ ইমন ও তার বাবা ছুরি নিয়ে ঘরের বেড়া ভেঙে ঘুমন্ত অবস্থায় নিলোৎপলকে টেনে তোলে এবং ইমন নিলোৎপলের তলপেটে ছুরিকাঘাত করতে থাকে। নিলোৎপলকে উপর্যুপরি ছুরি দিয়ে আঘাত করলে সে চিৎকার করে এবং মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। সাথে সাথে স্থানীয়রা টের পেয়ে মোঃ ইমনকে আটক করলেও তার বাবা বাদল মিয়া পালিয়ে যায়।

রক্তাক্ত অবস্থায় নিলোৎপলকে স্থানীয় এমবিবিএস ডাক্তারের কাছে নেওয়ার পথে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের ফলে পথিমধ্যেই সে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। স্থানীয়রা ঘাতককে আটক করে এবং গণ পিটুনি দেয়। এরপর পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে এবং সবশেষ জানা গেছে চালনা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কিছুক্ষণ আগে মারা গেছে ঘাতক মোঃ ইমন মিয়া।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

 

E-mail: info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Ltd.

Request Mobile Site

Copyright © 2020 Eibela.Com
Developed by: coder71