বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯
বৃহঃস্পতিবার, ৩০শে কার্তিক ১৪২৬
সর্বশেষ
 
 
আরএসএস মুক্ত ভারত গড়ার ডাক দিলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী
প্রকাশ: ০৮:১০ am ১৭-০৪-২০১৬ হালনাগাদ: ০৮:১০ am ১৭-০৪-২০১৬
 
 
 


আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের বিহার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং জেডিইউ প্রেসিডেন্ট নীতিশ কুমার ‘আরএসএস মুক্ত ভারত’ গড়ার ডাক দিয়েছেন। গত লোকসভা নির্বাচনের সময় বিজেপি’র প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হয়ে নরেন্দ্র মোদি ‘কংগ্রেস মুক্ত ভারত’ গড়ার ডাক দিয়েছিলেন।

শনিবার জেডিইউ প্রেসিডেন্ট এবং মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার ‘সংঘ মুক্ত ভারত’ গড়ার আহ্বান জানিয়ে ‘গণতন্ত্রকে রক্ষা করতে’ অবিজেপি দলকে একজোট হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। বিহারের রাজধানী পাটনায় এক অনুষ্ঠানে নীতিশ কুমার বলেন, ‘সংঘ মুক্ত ভারত’ গড়ার জন্য সমস্ত অবিজেপি দলকে এক হতে হবে।’

নীতিশ কুমার বলেন, ‘বিজেপি এবং তার বিভেদসৃষ্টিকারী মতাদর্শের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়াই গণতন্ত্র রক্ষার একমাত্র উপায়।’ তিনি আরো বলেন, তারা কোনো দল বা ব্যক্তি বিরোধী নয়, আরএসএসের বিভেদ সৃষ্টিকারী মতাদর্শের বিরোধী।

নীতিশ কুমারের দলের সঙ্গে এক সময় বিজেপি’র জোট সরকার ছিল বিহারে। যদিও বিজেপি’র বর্তমান নেতৃত্বের প্রতি অসন্তুষ্ট হয়ে ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে ২০১৩ সালের জুনে বিজেপি’র সঙ্গে দীর্ঘ ১৭ বছরের সম্পর্ক ভেঙে দেয় জেডিইউ।

নীতিশ কুমার আগামী ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে বিহার মডেল অনুসরণ করে জাতীয় স্তরে অবিজেপি দলকে ঐক্যবদ্ধ করার চেষ্টা শুরু করেছেন। গত বিধানসভা নির্বাচনে জেডিইউ-কংগ্রেস এবং আরজেডি জোটের মুখে টিকতে পারেনি বিজেপি। নানা প্রচারণা চালিয়েও বিজেপিকে এখানে শোচনীয় পরাজয়ের মুখে পড়তে হয়। নীতিশ কুমার এবার এই জোটকে আরো সম্প্রসারিত করে জাতীয় স্তরে বিজেপি’র মোকাবিলা করার ডাক দিয়েছেন।

জেডিইউয়ের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পরে নীতিশ কুমার গত ১১ এপ্রিল আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগে কংগ্রেস, বাম এবং অন্যান্য আঞ্চলিক দলকে নিয়ে বৃহত্তম ঐক্য গড়ার কথা বলেছিলেন। তিনি বলেন, ‘বিজেপি’র তিনি শীর্ষ নেতা অটল বিহারী বাজপেয়ী, এল কে আদবানী এবং মুরলী মনোহর যোশিকে দলের মধ্যে কোণঠাসা করে দেয়া হয়েছে। এখন দল এবং ক্ষমতা ভোগ করছে এমন লোকজন যাদের সেক্যুলারিজম এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে কোনো বিশ্বাস নেই।’

নীতিশ কুমার বলেন, ‘আমরা জোটের জন্য নিরন্তর প্রয়াস চালিয়ে যাব। অন্যরাও চাইছেন ব্যাপক ঐক্য হওয়া প্রয়োজন যাতে মানুষ দেখতে পারে এই শক্তি বিজেপিকে খারাপভাবে পরাজিত করতে পারে।’

খবর: রেডিও তেহরান

এইবেলা ডটকম/এসবিএস

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

Editor: Sukriti

E-mail: news@eibela.com, news.eibela@gmail.com Editor: sukritieibela@gmail.com

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71